পাতা:ইন্দুমতী - যতীন্দ্রনাথ মুখোপাধ্যায়.pdf/১৩৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।
১২৪
ইন্দুমতী।

সকলে “স্বদেশ” হই। দেখিনা চাহিয়া,
আমাদের মাঠে ঘাটে,অরণ্যে,সলিলে,
পড়িয়া রয়েছে কত অগণিত ধন।
কৃষির উন্নতি কিসে ভাবিনা কখন।
কি করিলে হয় মাঠে ফসল প্রচুর,
অগণিত ফল বৃক্ষে, জলাশয়ে আর
জনমে অসংখ্য মৎস্য, সুলভে আহার
মিলে সবাকার, তাহা ভাবিনা কখন।
কেমনে বাণিজ্য,আর শিল্পের উন্নতি,
কেমনে করিতে হয় যৌথ কারবার,
ভাবিনা কখন তাহা। কাহার উপর
কা’র নাহি সমব্যথা,নাহিক বিশ্বাস।
বিপদে কাহারে কভু করিনা সাহায্য।
নিধন আত্মীয়,আর দীন প্রতিবাসী,
চাহিনা তা’দের প্রতি। করিনা তাদের
সুখেতে আনন্দ,আর দুঃখে সমব্যথা।
এত কাজ স্বত্তে তবু রাজনীতি লয়ে
সকলে আমরা মত্ত,করি গোলমাল।
কবে যে ফুটিবে হায়! চক্ষু আমাদের,
ঈশ্বর জানেন তাহা।

সকলে তখন
উপনীত হ’ল গুপ্ত-সমিতির স্থানে।