পাতা:ইন্দুমতী - যতীন্দ্রনাথ মুখোপাধ্যায়.pdf/১৫৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।
১৪৪
ইন্দুমতী।

দেবব্রত স্থিরভাবে শুনিল সকল
বিস্মিত হইল কথা শুনিয়া রাধার;
নত মুখে কিছুক্ষণ চিন্তা করি তিনি
ধীরে ধীরে বলিলেন মন্তব্য তাহার।

“আমার বিশ্বাস ছিল তুমি যে আমারে
দেখিতে স্নেহের চক্ষে বাসিতে যে ভাল;
এ নহে ত ভালবাসা – নির্ম্মল, পবিত্র,
মানবের মুক্তি পথ,জীবনের আলো।

“এ যে ঘোর লালসার জ্বলন্ত অনল,
যাহাতে পুড়া’য়ে সব করে ছারখার;
মানবের দেব ভাব করিয়া বিনাশ
আলোময় প্রাণ করে চির অন্ধকার।

“সুখ দুঃখ মোহপূর্ণ এই যে সংসার
প্রলোভনময়, ইহা পরীক্ষার স্থান;
এখানে সূচিত হয় জীবাত্মার গতি,
স্থূল দেহ যবে তা’র হয় অবসান।

“মানব জীবন এক মহা অপূর্ণতা,
কখন মিলেনা পূর্ণ সুখ শান্তি সাধ;
কিছুতেই তৃপ্তি কভু হয় না কাহার,
অশান্তি শান্তির সাথে,সুখেতে বিষাদ।