পাতা:ইন্দুমতী - যতীন্দ্রনাথ মুখোপাধ্যায়.pdf/১৫৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।
১৪৫
দ্বিতীয় খণ্ড—পঞ্চম সর্গ।

“সংযমে মানব হয় দেবে পরিণত,
সকল শক্তির শ্রেষ্ঠ চরিত্রের বল
অনুশীলনেতে হয় চরিত্র গঠিত,
সুচিন্তা করিলে হয় অনন্ত মঙ্গল।

“এই যে দেখিছ দেহ ইহার বিনাশ
মুহূর্ত্তে হইতে পারে,নাহিক সময়;
এই যে দেখিছ রূপ,পূর্ণ মাদকতা,
বীভৎস হইতে পারে একটী পীড়ায়।

“আজি নহে কাল এই জীবন প্রদীপ
একটী ফুৎকারে তাহা যাইবে নিবিয়া;
কুসুম-কোমল দেহ, কুসুমের মত,
কালের নিশ্বাসে তাহা পড়িবে ঝরিয়া।

“এই যে দেখিছ নিশা হ’বে ইহা শেষ
আবার আসিবে দিন,হ’বে অবসান;
এই যে দেখিছ ফুল পড়িবে ঝরিয়া,
এই যে দেখিছ আলো হইবে নির্ব্বাণ।

“কে জানে কোথায় আত্মা যাইবে চলিয়া
কে জানে আঁধার কিম্বা উজ্জল সে দেশ;
করিব যেমন কর্ম্ম,সেই কর্ম্ম ফল
লইয়া যাইবে সেথা হ’লে আয়ু শেষ।