পাতা:ইন্দুমতী - যতীন্দ্রনাথ মুখোপাধ্যায়.pdf/২৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।
১৩
দ্বিতীয় সর্গ।

এ দেশের মত কি গো, সে দেশেও আছে,
হাহাকার রব, দুঃখ, বিরহ, আঁধার?
কে জানে সে দেশ কিবা! কি রহস্যময়
জীবন, মরণ, বিশ্ব, জন্ম, জন্মান্তর!
 “কাৰ্য্য কারণের কিযে অনন্ত শৃঙ্খলে,
রহিয়াছে বাঁধা এই জগৎ সংসার,
কেমনে বুঝিব ক্ষুদ্র মানব আমরা,
নাহি যে শকতি তা’র করিতে ধারণা।
রবির আলোক তাপে স্থূল বারি রাশি
সূক্ষ্য বাষ্প কণা রূপে হয় পরিণত,
ইন্দ্ৰিয়ের অগোচর, নীল নভঃ কোলে,
সতত বেড়ায় ভাসি, কে দেখে তা বল?
যখন অবস্থা ভেদে, শৈত্যের পরশে,
প্রত্যক্ষ অতীত সেই সূক্ষ বারি কণা
গাঢ় কৃষ্ণ মেঘ রূপে হয় পরিণত,
স্থূল আবরণে ঢাকি সারাটি আকাশ,
প্রখর সূৰ্য্যের কর, শশি, গ্ৰহ, তারা,
আঁধারে ছাইয়া ফেলি সমস্ত সংসার,
কে জানে তাহার মাঝে আর কি শকতি,
আছে গো নিহিত শেষে কিবা তার ফল?
চিকুর চমকে যাবে, অনলের রেখা,
ঘন ঘন খেলে যবে জলদের গায়,