পাতা:ইস্তাহার (বিশ্বজ্ঞান প্রকাশনী).pdf/২৩

উইকিসংকলন থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।
যৌথ

সবল পেশীর মুষ্টিতে ঘোরে যন্ত্রের চাকা,
প্রসূত সৃষ্টি মুনাফা আনে সহস্র টাকা।

মজদুর আমি যন্ত্রের মতো দৃঢ় কঠোর,
আমার দেহের বয়লারটার নাম জঠর,
সেখানেও চাই কয়লার মতো কিছু রুটি।
ধর্মঘটের কৌশল আনে গণছুটি,
লক আউট সভা ঘেরাও মিছিল সন্ত্রাসে
দুঃখ ঘুচবে, এ কথা শুলে কে না হাসে?

মজদুর আমি যান্ত্রিক আমি, এ দেশ আমার,
দেশের ফসল উৎপাদনের দায়িত্বভার
আমার মতন মজুর ভাইয়েরা নেয় যখন,
মালিক, বৃথা না-ই বা করলে আস্ফালন!
নির্ধারিত নিয়মে তব বখরার হার;
মজদুর মেরে উদরপূর্তি হবে না আর।

এস আজ মোরা মালিক মজুর একই সাথে
যন্ত্রের চাকা ঘোরাই সহজে যৌথ হাতে।

২৫