পাতা:ঈশ্বরচন্দ্র গুপ্তের জীবনচরিত ও কবিত্ব.djvu/১২৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


কবিতাসংগ্রহ। ○○ যাহা ইচ্ছা মুখে তাহা, কল্পিছ ভক্ষণ । তক্ষণ কথন নয়, যোগের লক্ষণ ৫ : আহারের লোভে সদা, বেড়ায় ঘুরিয়া । যাহা পায়, তাহ খায়, উদর পুরিয়া ॥ ভক্ষ্যাভক্ষ্য বিচারেতে, ঘৃণা নাহি হয় । শূকর শূকরী তবে, যোগী কেন নয় ? o e শরীরের সমুদয়, লোমকূপ ঢেকে । দিবানিশি থাক তুমি, ছাই ভস্ম মেখে ॥ বড় ছটা ঘোর ঘটী, ভজনার জীক । , মাঝে মাঝে উচ্চ রবে, ছাড়িতেছ ডাক । ভ্রম হেতু যোগতত্ত্বে. হারায়েছ দিশে । ডেকে ডেকে ছাই মেখে, যোগী হবে কিসে ভষ্মমাখা কলেবর দৃশু ভয়ঙ্কর। ভয়ে কঁপে থর থর দেখে যত নর ॥ থেকে থেকে ডাক ছাড়ে, ভস্ম মাঝে রয় । কুকুর কুকুরী তবে, যোগী কেন নয় ? শীত গ্রীষ্ম সহ্য কর, নিজ দেহ বলে। দুখ বোধ নাহি মাত্র, রৌদ্র আর জলে ॥ জল আর তৃণফল, করিয়া আহার। তপস্যায় চিরকাল, করিছ বিহার ॥