পাতা:ঈশ্বরচন্দ্র গুপ্তের জীবনচরিত ও কবিত্ব.djvu/১৫৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


কবিতাসংগ্ৰহ । やS) সুবিচার নাহি কর, হেয়ে তুমি রাজা । কিরূপে বাচিবে প্রজ, সদা শুকো হাজt ॥ বিপদ আমার পক্ষে, রক্ষে কিসে হয় । প্রতি কাল, এসে কাল, করে কর লয় ॥ কোনৰূপে তার কাছে, নাহি চলে ফাকি । জমা জমি কঙ্কা কমি, নাহি রাখে বাকি ॥ করি বা কি, তার বাকি, রীফকোন স্তাবে । আঁখির নিমিষে ধোপে, বেঁধে নিয়ে যাবে ॥ পাইয়া তোমার ভূমি, এই ভোগ তার । না হলো মুখের যোগ, কৰ্ম্মভোগ সার ॥ তার হাতে বদ্ধ আছি, হাত নাই যার । দেখি শেষ কপালেতে, কি হয় আমার ॥ পোড়েছি তোমার হাতে, তুমি হও পর । মনে ঠিক জানিয়াছি, তুমি নও পর । দয়াকর দয়া কর, পাতিয়াছি কর । কর পাত একবার, আমি দিই কর । না কর উপুড়হস্ত, গুটাইয়া রাকে । পেতে কর, পেতে কর, কিছু কাল থাকে। आभाग्न জিয়াছ কর, কর তার লও । করে লিখি তব গুণ, অমুকুল হও । প্রেম তুলি, তুলি তাহে, ভক্তি রঙ্গ দিয়া । হৃদিপটে তব রূপ রাখিব লিখিয়া ॥