পাতা:ঈশ্বরচন্দ্র গুপ্তের জীবনচরিত ও কবিত্ব.djvu/১৫৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


○8 কবিতাসংগ্রহ। মনোময় রূপ ধরি, দরশন দেহ। তুলি ধরি চিত্র করি, পূর্ণ করি দেহ ॥ মনে, হাতে, যাতে পারি, তোমার বিভাস। অস্তুর বাহিরে আমি, করিক প্রকাশ ॥ শুনিলাম অপরূপ, মাক নাই তক । স্ববাস কুধর্ম নাছি, হয় অনুভব । গন্ধবহে, গন্ধ বহে, কাছে অহরহ। তুমি তার গন্ধভার, কিছু নাহি লহ ॥ তোমার শরীর নাকি, এমনি অবশ। নিরস্তর করাঘাত, করিছে অবস ॥ অবশের দণ্ড খাও, অবস হইয়া । বায়ুর যাতনা সদl, রোয়েছ সহিয়া ॥ ক্ষরী ধরি, বজ্র বারি, করিছে প্রহর । শিশির নিয়ত মারে, নিশির নীহার ॥ সকল্পে কোমলকায়, সয় সমুদয় । এ সকল যাতনায়. যাতনী না হয় ॥ পরম মঙ্গলময়, তুমি নিজে শিব । শিৰের অশিব গুনে, কঁাদে যত জীব ॥ থেলিয়া ভবের খেলা, তুমি হোলে কাদি । দেখিয়া তোমার নাট, হাসি আর কাদি ।