পাতা:ঈশ্বরচন্দ্র গুপ্তের জীবনচরিত ও কবিত্ব.djvu/১৮৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


సెశ్చి কবিতাসংগ্ৰহ । এ বড় গোপন ভাব, অপেন হারায়ে । স্নপন করেছে বীজ, স্বপন দেখায়ে ! নিজের বীজের ফল, ঈশু যদি হয়। দোষের ত নয় তবে, ঘোষের তনয় । দিশী কৃষ্ণ, রিসি কৃষ্ণ, এ দেশ ও দেশ । উভয়ের কার্য্য আছে, বিশেষ বিশেষ ॥ বিলাতের ব্রহ্ম যদি, মেরিমার মাছ। এ দেশের ব্রহ্ম তবে, যশোদার যাদু ॥ খুলিয়া পুরাণ গীতা, ভাবে ঢোলে ঢোলে । কব তার সব গুণ, অবতার বোলে ৷ একুমারীর গর্ভে শিশু, হোরে অবতার। করিলেন পৃথিবীর, পাতকী উদ্ধার ॥ বিভুরূপে খ্যাত হন, নানারূপ ছলে । ভুলালেন রোম দেশ, কুহকের বলে ॥ ধৰ্ম্মের বিস্তার করি, দেন উপদেশ । ভূতরূপী ভগবান, ঘুঘু আর মেষ ॥ শিষ্যগণ সঙ্গে সদা, যুগি জোল জেলে । সবে বলে এই প্রভু, ঈশ্বরের ছেলে ॥ নাম জারি করিলেক, চেলা সব ঠাই । শিষ্টবেশে দেশে দেশে, ফেরেন গোসাই । পাপী পরিত্রাণ হেতু, করুণানিধান । জুশের ক্রুশের ঘায়ে, তেজিলেন প্রাণ ॥