পাতা:ঈশ্বরচন্দ্র গুপ্তের জীবনচরিত ও কবিত্ব.djvu/২৩৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


কবিতাসংগ্রহ । s8० হরি হরি দ্বেষ ভাব, ডাকে হরি হরি । করী অাছে তার কাছে, প্রেমভাব করি ॥ একঠাই রহিয়াছে, রাক্ষস বানর। ময়ুর ভুজঙ্গে নাই, দ্বন্দ্ব পরস্পর ॥ ছেড়েছে খলতা রোগ, যত সব খল । দে জল দে জল বাবা, দে জল দে জল ॥ জলদে জলদে বাবা, জলদেরে বল। দে জল দে জল বাবা, দে জল দে জল ॥ হায় হায় কি করিব, রাম রাম রাম। কত বা মুচিব আর, শরীরে ঘাম ? টস টস করে রস, ঝরে অবিশ্রাম । দারুণ দুর্গন্ধ গায়, পোচে যায় চাম। ঘামাচি ঘামের ছেলে, উঠে দেহ ছেয়ে । পূবের বাঙ্গাল চাচা, যত বাবু ভেয়ে ॥ নখাঘাতে হয়ে যায়, সব অঙ্গ খোলা । সাক্ষাৎ পরেশনাথ, বব বম ভোলা ॥ o 蛛 钟 料 দে জল দে জল বাবা, দে জল দে জল । জলদে জলদে বাবা, জলদেরে বল ॥ দে জল দে জল বাবা, দে জল দে জল ।