পাতা:ঈশ্বরচন্দ্র গুপ্তের জীবনচরিত ও কবিত্ব.djvu/২৪৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ses কবিতাসংগ্ৰহ । 鯛 कि कद झुःtथब्र कथा, ठूझगश् शङ जउ , সখ্যভাবে ছিল এতদিন । মুখতুলে সেই লতা, এখন ন কয় কথা, নতমুখে হতেছে মলিন ॥ বৃক্ষবর বক্ষে করি, শাখারূপ করে ধরি, লতার স্তৰকরুপ স্তন। নাগর নাগরী যোগ, মরি কি সুখের ভোগ, কোরেছিল প্রেম আলাপন ॥ দীর্ঘকায় প্রাণপতি, লত। বালা রসবতী, পতি-মুখ-চুম্বন আশায়। দিতে দিতে আলিঙ্গন, করি দেহ সঞ্চালন, দ্রুতগতি উৰ্দ্ধমুখে ধায় ॥ মরি মরি আহ! আহ, এখনি দেখেছি যাহা, ক্ষণপরে তাছা নাই আর । পতির অবস্থা ভেদে, সতী লতা মরে খেদে, কালের কি ভাব চমৎকার ॥ কালের কি ধৰ্ম্ম হেন, আষাঢ়ে বৈশাখ যেন, বিন্দুপাত না হয় ভূতলে । জোলে পুড়ে ছারখার, ধরণী কি বঁাচে অার, ঘৰ্ম্ম আর নয়নের জলে । নীরদে না পেয়ে নীর, শাখা আর শাখিনীর, হোয়ে গেল দারুণ দুর্দশ ।