পাতা:ঈশ্বরচন্দ্র গুপ্তের জীবনচরিত ও কবিত্ব.djvu/২৯৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


কবিতাসংগ্ৰহ । ২৯১ বিদ্যা নাই, জ্ঞান নাই, সাধ্য নাই কিছু। গায়ত্রীর নাম নাই, বামনাই নিছু ॥ কপালের মাঝে এক, আর্কফলা জুড়ে । দ্বারে দ্বারে ভ্রমে শুদ্ধ, ধন টু ড়ে চড়ে। পূজা সন্ধ্যা কেবা জানে, শাস্ত্ৰবোধহত । কথায় কথায় ক্রোধ, দুৰ্ব্বাসার মত ॥ ক্ষুদ্রের স্বভাব সব, বিষম বিকট । রুদ্রের প্রতাপ ধরে, শূদ্রের নিকট ॥ পেলে কিছু গদ গদ, আশীৰ্ব্বাদ মুখে । ন পেলে বাপান্ত গাল, অনর্গল মুখে ॥ যাজক পূজক যত, ষণ্ডামার্ক দ্বিজ । অন্বেষণ করিতেছে, পন্থ নিজ নিজ ॥ হড় বড় দড় বড়, মুখে বসে হাট । “অপবিত্র পবিত্রব উদ্ধ এই পাঠ ॥ পূজারির কার্য্য যত, সে কেবল রোগ । পুকারে উকার লোপ, আকারের যোগ ॥ দনুজদলনী দুর্গে, পতিতপাবনী । হিন্দুদের ত্রাণকত্রী, তুমি মা জননী ॥ এই হেতু করি তব, প্রতিমা নিৰ্ম্মাণ । সুখেতে থাকিব সব, তোমার সন্তান ॥ এতদিন সুখে বটে, রাখিয়াছ তারা। এবছর কেন দেখি, বিপরীত ধারা ?