পাতা:ঈশ্বরচন্দ্র গুপ্তের জীবনচরিত ও কবিত্ব.djvu/৩১৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


२२8 কবিতাসংগ্রহ । বামনের অভিলাষ, ধরিবেক শশী । উৰ্দ্ধভাগে হস্ত তুলে, ভূমিতলে বসি । তুরঙ্গের খরগতি, থর করে বাসকি করিতে বধ, বাহ করে বক ? কাকের কোকিল রবে, লজ্জা নাহি হয় । গেল বিপক্ষের ভয়, গেল বিপক্ষের ভয় ॥ শতলজ পার হুলে, শীক সমুদয় । রণে ব্রিটিসের জয়, রণে ব্রিটিসের জয় ॥ পঞ্জাবীয় শীকদের, অাশ। ছিল মনে । ব্রিটিস বিনাশ করি, জয়ী হবে রণে ॥ সমুদয় অস্ত্র লয়ে, হয়ে অগ্রসর । করিল শিবিরে আমি, সন্মুখ সমর ॥ প্রথমে জঙ্গল পেয়ে, মঙ্গল সাধন । «. দঙ্গল বাধিয়া করে, ঘোরতর রণ ॥ মাঠে এসে ফাটে বুক, মুখ শুষ্ক হয়। গেল বিপক্ষের ভয়, গেল্প বিপক্ষের ভয় । শতলজ পার হলো, শীক সমুদয় ॥ রণে ব্রিটিসের জয়, রণে ব্রিটিসের ཝརྨ། །