পাতা:ঈশ্বরচন্দ্র গুপ্তের জীবনচরিত ও কবিত্ব.djvu/৩৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


२७ न्नेईब्राऊ ७:खग्न औवनमब्रउ । লেখক প্রভাকরের শিক্ষানবিশ ছিলেন। বাৰু রঙ্গালাল बएकां”ांशांब्र ७क छन । बांबू नैौमबडू बिज जांब ७क अन। শুনিয়াছি, বাবু মনোমোছন বল্প জার এক জন । ইহার জন্যও বাঙ্গালার সাহিত্য, প্রভাকরের নিকটু ঋণী । আমি নিজে প্রভাকরের নিকটে বিশেষ ঋণী । জামার প্রথম রচনা গুলি প্রভাকরে প্রকাশিত হয়। সে সময়ে ঈশ্বরচন্দ্র গুপ্ত আমাকে বিশেষ উৎসাহ দান করেন। - - ১২৩৯ সালে যোগেন্দ্রমোহন প্রাণত্যাগ করায়, সংবাদ প্রভাকরের তিরোধান হয়। ঈশ্বরচন্দ্র ১২৫৩ সালের ১লা বৈশাখের প্রভাকরে লিখিয়া গিয়াছেন, “এই সময়ে ( ১২৩৯ সালে ) জগদীশ্বর অামাদিগের কৰ্ম্ম এবং উৎসাহের শিরে বিষম বৃজু নিক্ষেপ করিলেন, অর্থাৎ মহোপকারী সাহায্যকারী খহুগুণধারী আশ্রয়দাভ। বাৰু .যোগেন্দ্রমোহন ঠাকুর মহাশয় সাংঘাতিক রোগ কর্তৃক আক্রান্ত হইয়া কৃতান্তের দন্তে পতিত হইলেন। সুতরাং ঐ মহাত্মার লোকাস্তরগমনে আমরা অপৰ্য্যাগু শোকসাগরে নিমগ্ন হইয় এককালীন সাহস এবং অনুরাগশূন্ত হইলাম। তাছাতে প্রভাকর করে অনাদরপ মেঘাव्छ्त्व इ७न छछ ७३ eधडांकब्र कब्र यक्रम कब्रिज्ञ किंहू দিন গুপ্তভাৰে গুপ্ত হইলেন।” -- প্রভাকর সম্পাদন দ্বারা ঈশ্বরচন্দ্র সাধারণ্যে খ্যাতি