পাতা:ঈশ্বরচন্দ্র গুপ্তের জীবনচরিত ও কবিত্ব.djvu/৯৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


কবিতাসংগ্ৰহ । निश्वांन झहैटल ब्रक, মুক্তিকায় দেহ শুদ্ধ, চারি দিকে হবে শুদ্ধ, রোদনের হাক । মুদিলে যুগল আঁখি, সকল হইবে ফাকি, কোথায় রহিবে চাকি, ভেঙ্গে যাবে চাক্ । ছনিয়ার মাঝে বাবা সব হ্যায় ফাক্‌ ৷ মিথ্যা সুখে সদা রক্ত, . শত শত অযুগত, গৌরব করিয়া কত, গোপে দেও পাক । পোসাকের দাম মোটা, জুতা পায়ে এড়িওটা, কপাল জুড়িয়া ফোটা, শোভ করে নাক । দুনিয়ার মাঝে বাবা সব হ্যায় ফাকু ॥ নারীর কোমল গাত্র, মদনের স্বরাপাত্র, তাহার উপর মাত্র, নয়নের তাক । বসনে বিচিত্র সাজ, " কাবায় রঙ্গিল কাজ, শিরে দিয়ে বাকা তাজ, ঢেকে রাখ টাক। দুনিয়ার মাঝে বাবা সব হ্যায় ফাক ॥ স্নেহ করে পরিজন সদাই সন্তুষ্ট মণ, • স্বদে স্বদে বাড়ে ধন, কত লাক লাক । রাখিয়াছে বাপদাদা, ধপধপ বর্ণ শাদী, সারি সারি তোড়া বাধা, শোভে থাকে থাক ।