পাতা:ঈশ্বরচন্দ্র গুপ্তের জীবনচরিত ও কবিত্ব.djvu/৯৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


কবিতাসংগ্ৰহ।

  • ছনিয়ার মাঝে বাবা সব হ্যায় ফাক ॥.

ছইয়া আশার বশ, ভ্ৰমে চাহ মিছা যশ, বিষয় বিষের রস, নহে পরিপাক । তুমি কেবা, কেবা পুত্র, আপনার নাহি কুত্ৰ, মিছামিছি মায়াস্বত্র, শেষ কুন্তীপাক । দুনিয়ার মাঝে বাবা সৰ হ্যায় ফাক, ॥ চিন্তা কর পরকাল, নিকট বিকট কাল উচ্চৈঃস্বরে বাজে ভাল, শমনের ঢাক । জীবন ছাড়িবে কোল, না রহিবে কোন বোল, ' হরেকৃষ্ণ হরিবোল, এই মাত্র ডাক । দুনিয়ার মাঝে বাবা সব হ্যায় ফাক ॥ সব ভরপুর। দুনিয়ার মাঝে বাবা সব ভরপুর, বাবা সব ভরপুর। পরিমাণে ধনদানে গৌরব প্রচুর, বাবা গৌরব প্রচুর। পেয়েছ উত্তম দেহ, যোগ-পথে মন দেহ, পরিহরি মোহ স্নেহ, চল সুরপুর। যোগযুক্ত অহঙ্কার, করি তায় অলঙ্কার,