পাতা:উড়িয়া স্বতন্ত্র ভাষা নহে.djvu/১৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।

(৭)

নিম্নে প্রদর্শিত হইতেছে। সংসর্গ-দোষ যেরূপ চরিত্র বৈলক্ষণ্যের, সেইরূপ ভাষা বৈলক্ষণ্যেরও কারণ। সেই হেতু পার্ব্বত্য ভুটিয়া জাতিদিগের সংসর্গে রংপুর দিনাজপুর প্রভৃতিস্থ ব্যক্তিদিগের, অসভ্য গার ও খশিয় জাতিদিগের সঙ্গদোষে শ্রীহট চট্টগ্রাম কমিল্লা প্রভৃতি স্থানের লোকদিগের, পর্ব্বতবাসী সাঁওতালদিগের সংসর্গে বীরভূম বাঁকুড়া প্রভৃতি স্থানবাসীদিগের এবং বলেশ্বরের নিকটবাহী নীলগিরি-নিবাসী সাঁওতাল ও গণ্ড প্রভৃতি অসভ্য পার্ব্বত্য জাতিদিগের সংস্রবে বলেশ্বর কটক পুরী প্রভৃতি স্থানবাসীদিগের ভাষা বিকৃতি প্রাপ্ত হইয়াছে। অর্থাৎ যতই ঐ সকল অসভ্য জাতিদিগের সহিত অধিক ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক হইয়াছে, ততই নিকটবর্ত্তী বাঙ্গালীদের ভাষা সংসর্গদোষে অতিরূঢ়, কর্কশ, অশুদ্ধ, অপভ্রষ্ট ও যৎপরোনাস্তি কদর্য হইয়া আসিয়াছে। কলিকতা ও তন্নিকটবর্ত্তী লোকদিগের সহিত ঐ ঐ অসভ্য জাতিদিগের সংসৃষ্ট ভাব নাই; সুতরাং তত্তংস্থান-বাসীদের ভাষা কোমল, শুদ্ধ ও সুশ্রাব্য। ফলতঃ কলিকাতার বিদূরবর্তী ও ঐ ঐ জাতিয় সমীপবর্ত্তী স্থানের লোকদিগের ভাব এরূপ বিকৃত হইয়া আসিয়াছে ও তাহাদিগের স্বররৈলক্ষণ্যাদি দোষ এত অধিক যে, তত্তৎদেশের অশিক্ষিত্ত লোকদিগের কথিত ভাষা শুনিলে হঠাৎ কোন মতে বাঙ্গালা বলিয়া বোধ হয় না। যাহা হউক সংসর্গ দোষে বিকৃতি প্রাপ্ত হইলেও উড়িয়া ও বাঙ্গালা