পাতা:উৎসর্গ-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.djvu/৫৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।


শিখরে শিখরে তব ছায়াচ্ছন্ন গুহায় গুহায়
রাখিছ নিরুদ্ধ করি-পুনর্বার উন্মুক্ত ধারায়
নূতন আনন্দস্রোতে নব প্রাণে ফিরাইয়া দিতে
অসীমজিজ্ঞাসারত সেই মহাসমুদ্রের চিতে।
সেইমতাে ভারতের হৃদয়সমুদ্র এতকাল
করিয়াছে উচ্চারণ উর্ধ্ব-পানে যে বাণী বিশাল-
অনন্তের জ্যোতিস্পর্শে অনন্তেরে যা দিয়েছে ফিরে-
রেখেছ সঞ্চয় করি, হে হিমাদ্রি, তুমি স্তব্ধশিরে।
তব মৌন শৃঙ্গ-মাঝে তাই আমি ফিরি অন্বেষণে
ভারতের পরিচয় শান্ত-শিব-অদ্বৈতের সনে।

জোড়াসাঁকো। কলিকাতা

৯ আষাঢ় ১৩১০


৩০

ভারতের কোন্ বৃদ্ধ ঋষির তরুণ মূর্তি তুমি
হে আর্য আচার্য জগদীশ ! কী অদৃশ্য তপােভূমি
বিরচিলে এ পাষাণনগরীর শুষ্ক ধূলিতলে!
কোথা পেলে সেই শান্তি এ উন্মত্ত জনকোলাহলে
যায় তলে মগ্ন হয়ে মুহূর্তে বিশ্বের কেন্দ্র-মাঝে।
দাঁড়াইলে একা তুমি, এক যেথা একাকী বিরাজে

৫৫