পাতা:উৎসর্গ-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.djvu/৯১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।


অজানা কোন্ অমঙ্গলে বক্ষ কাঁপে ডরে-
রাত্রি হল, ফিরে এলেম যে যার আপন ঘরে ।

পরদিনে প্রভাত হল দেবদারুর বনে,
ঝর্নাতলায় আনতে বারি জুটল নারীগণে।
দুয়ার খােলা দেখে আসি,  নাই সে খুশি, নাই সে হাসি-
জলশূন্য কলসখানি গড়ায় গৃহতলে,
নিব-নিব প্রদীপটি সেই ঘরের কোণে জ্বলে।
কোথায় সে যে চলে গেল রাত না পােহাতেই,
শূন্য ঘরের দ্বারের কাছে সন্ন্যাসীও নেই।

চৈত্রমাসে রৌদ্র বাড়ে, বরফ গ’লে পড়ে-
ঝর্নাতলায় বসে মােরা কাঁদি তাহার তরে।
আজিকে এই তৃষার দিনে  কোথায় ফিরে নিঝর বিনে,
শুষ্কলস ভরে নিতে কোথায় পাবে ধারা !
কে জানে সে নিরুদ্দেশে কোথায় হল হারা !
‘কোথাও কিছু আছে কি গাে’ শুধাই যারে তারে—
‘আমাদের এই আকাশ-ঢাকা দশ পাহাড়ের পারে?

গ্রীষ্মরাতে বাতায়নে বাতাস হু হু করে,
বসে আছি প্রদীপ-নেবা তাহার শূন্য ঘরে।
শুনি বসে দ্বারের কাছে  ঝর্না যেন তারেই যাচে-
বলে, ওগাে, আজকে তােমার নাই কি কোনাে তৃষা?

৮৯