পাতা:ঋতু-উৎসব - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/১২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ঋতুউৎসব b• আজি ক্ষণে ক্ষণে হাসিখানি, সখি, অধরে নয়নে উঠুক চমকি । মল্লার গানে তব মধুস্বরে দিক্ বাণী আনি বনমৰ্ম্মরে। ঘন বরিষণে জল-কলকলে এসে নীপবনে ছায়াবীথিতলে। নটরাজ। মহারাজ, এখন একবার ভিতরের দিকে তাকিয়ে দেখুন, রজনী শাঙন ঘন, ঘন দেয় গরজন, রিমঝিম শবদে বরিষে’ । রাজা । ভতরের দিকে t সেই দিকের পথই তো সব চেয়ে দুর্গম | নটরাজ । গানের স্রোতে হাল ছেড়ে দিন, সুগম হবে। অনুভব করচেন কি, প্রাণের আকাশে পূব হাওয়া মুখর হয়ে উঠল। বিরহের অন্ধকার ঘনিয়েছে। ওগো সব গীতরসিক, আকাশের বেদনার সঙ্গে হৃদয়ের রাগিণীর মিল করে । ধরে ধরে, “ঝরে ঝর ঝর’। ঝরে ঝর ঝর ভাদর বাদর, বিরহকাতর শর্বরী। ফিরিছে এ কোন অসীম রোদন কানন কানন মৰ্ম্মরি। আমার প্রাণের রাগিণী আজি এ গগনে গগনে উঠিল বাজিয়ে।