পাতা:ঋতু-উৎসব - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/১৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


S. শেষ বর্ষণ হৃদয় একি রে ব্যাপিল তিমিরে সমীরে সমীরে সঞ্চরি৷ নটরাজ। শ্রাবণ ঘরছাড়া উদাসী। আলুথালু তার জটা, চোখে তার বিদ্যুৎ। অশ্রান্ত ধারার একতারায় একই সুর সে বাজিয়ে বাজিয়ে সারা হোলো । পথহারা তার সব কথা বলে শেষ করতে পারলে না। ঐ শুনুন মহারাজ মেঘমল্লার । কোথা যে উধাও হোলো মোর প্রাণ উদাসী . আজি ভরা বাদরে ॥ ঘন ঘন গুরু গুরু গরজিছে, ঝরঝর নামে দিকে দিগন্তে জলধারা, মন ছুটে শূন্যে শূন্যে অনন্তে অশাস্ত বাতাসে ॥ রাজা । পূব দিকটা আলো হয়ে উঠলো যে, কে আসে? নটরাজ । শ্রাবণের পূর্ণিমা। রাজ-কবি । শ্রাবণের পূর্ণিমা ! হাঃ হাঃ হাঃ । কালো খাপটাই দেখা যাবে, তলোয়ারটা রইবে ইসারায় । রাজা । নটরাজ, শ্রাবণের পূর্ণিমায় পূর্ণতা কোথায়? ও ত বসন্তের পূর্ণিমা নয়।