পাতা:ঋতু-উৎসব - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/১৩০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ঋতু-উৎসব ১৩০ ৷ - অপরূপ সে যে রূপে রূপে । কি খেলা খেলিছে চুপে চুপে। কানে কানে কথা উঠে পূরে কোন সুদূরের স্বরেস্তুরে, চোখে চোখে চাওয়া নিয়ে চলে কোন অজানারি পথপারে । V) কবে মি আসবে বলে রইবো না বসে, আমি চলবো বাহিরে। শুকনে ফুলের পাতাগুলি পড়তেছে খসে, আর সময় নাহি রে ॥ ওরে বাতাস দিলো দোল, দিলো দোল । । এবার ঘাটের বাধন খোল, ও তুই খোল । মাঝ-নদীতে ভাসিয়ে দিয়ে তরী বাহি রে ॥ আজ শুক্ল একাদশী, হের নিদ্রাহারা শশী, ঐ স্বপ্ন-প:র:বারের খেয়া একলা চালায় বসি । তোর পথ জানা নাই, নাইবা জানা নাই, তোর নাই মানা নাই, মনের মানা নাই ; সবার সাথে চল বি রাতে সামনে চাহি রে ।