পাতা:ঋতু-উৎসব - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/১৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ঋতু-উৎসব X o নটরাজ। মহারাজ, বসন্ত পূর্ণিমাই ত অপূর্ণ। তাতে চোখের জল নেই কেবলমাত্র হাসি । প্রাবণের শুক্ল রাতে হাসি বলচে আমার জিং, কান্না বলচে আমার । ফুল ফোটার সঙ্গে ফুল ঝরার মালা-বদল । ওগো কলস্বরা, পূর্ণিমার ডালাটি খুলে দেখে, ও কী আনলে ? আজ শ্রাবণের পূর্ণিমাতে কী এনেছিস্ বল, হাসির কানায় কানায় ভরা কোন নয়নের জল। বাদল-হাওয়ার দীর্ঘশ্বাসে যুর্থীবনের বেদন আসে, ফুল-কোটানোর খেলায় কেন ফুল-ঝরানোর ছল ৷ কী-আবেশ হেরি চাদের চোখে, ফেরে সে কোন স্বপন লোকে । মন বসে রয় পথের ধারে, জানে না সে পাবে কারে, J. আসা-যাওয়ার আভাস ভাসে বাতাসে চঞ্চল । রাজা । বেশ, বেশ, এটা মধুর লাগলে বটে। নটরাজ । কিন্তু মহারাজ, কেবলমাত্র মধুর ? সেও তো অসম্পূর্ণ?

রাজা । . ঐ দেখো, যেমনি আমি বলেছি মধুর অমনি তার প্রতিবাদ । তোমাদের দেশে সোজা কথার চলন নেই বুঝি ?