পাতা:ঋতু-উৎসব - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/২০৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


০৯ ফাল্গুনী যখন খেলি তখন খেলাটাই হয় বড়ো, যার সঙ্গে খেলি তাকে নজর করিনে। এবার যদি সে ফেরে, তা’কে মুহূর্তের জন্যে অনাদর করবো না। | - আমার মনে হচ্চে আমরা কেবলি তা’কে দুঃখ দিয়েচি । তা’র ভালবাসা সব দুঃখকে ছাড়িয়ে উঠেছিলো । সে যে কী সুন্দর ছিলো, যখন তা’কে চোখে দেখলুম তখন সেটা চোখে পড়েনি । গান চোখের আলোয় দেখেছিলেম চোখের বাহিরে । অন্তরে আজ দেখবো, যখন আলোক নাহি রে । ধরায় যখন দাও না ধরা হৃদয় তখন তোমায় ভরা, এখন তোমার আপন আলোয় তোমায় চাহি রে । তোমায় নিয়ে খেলেছিলেম খেলার ঘরেতে । খেলার পুতুল ভেঙে গেছে প্রলয় ঝড়েতে। থাক্ তবে সেই কেবল খেলা, হোক না এখন প্রাণের মেলা,— তারের বীণা ভাঙলে, হৃদয়বীণায় গাহি রে। । Y b