পাতা:ঋতু-উৎসব - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৩০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ঋতু-উৎসব २b~ মন-ভুলানো মোহন তানে গান গাহিয়া ॥ নটরাজ । এইবার কবির বিদায় গান। বাশি হবে নীরব। যদি কিছু বাকি থাকে সে থাকবে স্মরণের মধ্যে । আমার রাত পোহালো শারদ প্রাতে । বাশি, তোমায় দিয়ে য়াব কাহার হাতে ॥ তোমার বুকে বাজলো ধ্বনি বিদায়-গাথা, আগমনী, কত যে, ফাল্গুনে শ্রাবণে, কত প্রভাতে রাতে। যে কথা রয় প্রাণের ভিতর অগোচরে •গানে গানে নিয়েছিলে চুরি করে। সময় যে তা’র হোলো গত নিশিশেষের তারার মতো - তারে শেষ ক’রে দাও শিউলি ফুলের মরণ সাথে । রাজা । ও কি ! একেবারেই শেষ হয়ে গেলো নাকি ? কেবল দুদণ্ডের জন্যে গান বাধা হোলো, গান সারা হোলো ! এত সাধনা, এত আয়োজন, এত উৎকণ্ঠা,—তারপরে ? - নটরাজ । “তারপরে” প্রশ্নের উত্তর নেই সব চুপ। এই তো স্বষ্টির লীলা। এ তো কৃপণের পুঁজি নয়। এ যে আনন্দের অমিত ব্যয় । মুকুল ধরেও যেমন ঝরেও