পাতা:ঋতু-উৎসব - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৫৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ঋতু-উৎসব ¢७ ঠাকুরদাদা । এখানকার রাজা তো কোনোদিন তাকে ডাকেন নি, চক্ষেও দেখেন নি। তুমি তার বীণা কোথায় শুনলে ? - - - সন্ন্যাসী । তোমরা হয় তো জান না বিজয়াদিত্য ব’লে একজন রাজা— ঠাকুরদাদা বল কি ঠাকুর! আমরা অত্যন্ত মূখ, গ্রাম্য, তাই বলে বিজয়াদিত্যের নাম জানব না এও কি হয় ? তিনি যে আমাদের চক্রবর্তী সম্রাট । সন্যাসী তা হবে। তা সেই লোকটির সভায় একদিন স্বরসেন বীণা বাজিয়েছিলেন, তখন শুনছিলেম। রাজা তাকে রাজধানীতে রাখার জন্তে অনেক চেষ্ট৷ ক'রেও কিছুতেই পারেন নি। . ঠাকুরদাদা . হায় হায়, এত বড় লোকের আমরা কোনো আদর করতে পারি সন্ন্যাসী - আদর করোনি—তাতে তাকে কমাতে পারোনি, আরো তাকে বড় করেছে। ভগবান তাকে নিজের সভায় ডেকে নিয়েছেন। বাবা উপনন্দ, তোমার সঙ্গে তার কী রকমে সম্বন্ধ হ’লো ? উপনন্দ ছোট বয়সে আমার বাপ মারা গেলে আমি অন্য দেশ থেকে এই নগরে আশ্রয়ের জন্তে এসেছিলেম। সেদিন শ্রাবণমাসের সকাল বেলায় আকাশ ভেঙে বৃষ্টি পড়ছিলো, আমি লোকনাথের মন্দিরের এককোণে দাড়াবো ব’লে প্রবেশ করছিলেম । পুরোহিত আমাকে বোধ হয় নীচ জাত মনে ক’রে