পাতা:ঋতু-উৎসব - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৭০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ঋতু-উৎসব ৬৮ ৷ আমাকে ব্যক্ত করে বলেছে এতে আমার ভারি আনন্দ হচ্চে। বিজয়াদিত্যের যে এত শত্রু জমে উঠেছে, তা তো আমি জানতেম না। । তবে বিদায় হই। প্রণাম । ( প্রস্থান ) (পুনশ্চ ফিরিয়া আসিয়া) আচ্ছ। ঠাকুর, তুমি তো বিজয়াদিত্যকে জানো, সত্য ক'রে বলে দেখি, লোকে তা’র সম্বন্ধে যতটা রটনা করে ততটা কি সত্য ? সন্ন্যাসী কিছুমাত্র না। লোকে তাকে একটা মস্ত রাজা বলে মনে করে, কিন্তু সে নিতান্তই সাধারণ মানুষের মতো । তার সাজ সজ্জা দেখেই লোক ভুলে গে ছে | রাজা বল কী ঠাকুর, হা হা হা হা ! আমিও তাই ঠাউরেছিলেম। র্ত্যা ! নিতান্তই সাধারণ মানুষ ! সন্ন্যাসী - আমার ইচ্ছে আছে আমি তা’কে সেইটে আচ্ছা ক'রে বুঝিয়ে দেবো । সে যে রাজার পোষাক প’রে ফাকি দিয়ে অন্য পাচ জনের চেয়ে নিজেকে মস্ত একটা কিছু ব’লে মনে করে, আমি তার সেই ভুলটা একেবারে । ঘুচিয়ে দেবো । রাজা তাই দিয়ে, ঠাকুর, তাই দিয়ে । সন্ন্যাসী তা’র ভণ্ডামী আমার কাছে তো কিছু ঢাকা নেই। বৈশাখ জ্যৈষ্ঠ মাসে প্রথম বৃষ্টি হ'লে পর বীজ বোনবার আগে তা’র রাজ্যে একটা মহোৎসব হয়।