পাতা:ঋতু-উৎসব - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৯০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


রাজা কী মুস্কিলেই পড়লেম ! সে সব কথা কেন ঠাকুর, সে এখন থাক না ! । ওহে লক্ষেশ্বর, তুমি এখানে বসে বসে কী শুনচো! এখান থেকে যাও না! মহারাজ, যাই এমন আমার সাধ্য কি আছে ? একেবারে পাথর দিয়ে চেপে রেখেচে । যমে না নড়ালে আমার আর নড়চড় নেই। নইলে মহারাজের সামনে আমি যে ইচ্ছামুখে বসে থাকি এমন আমার স্বভাবই নয়। ( বিজয়াদিত্যের অমাত্যগণের প্রবেশ ) মন্ত্রী জয় হোক মহারাজাধিরাজুচক্রবর্তী বিজয়াদিত্য ! (ভূমিষ্ঠ হইয়া প্রণাম ) রাজা আরে করেন কী, করেন কী ! আমাকে পরিহাস ক’বৃচেন নাকি ? আমি বিজয়াদিত্য নই। আমি তার চরণাশ্রিত সামস্ত সোমপাল । মন্ত্রী - মহারাজ, সময় তো অতীত হয়েচে, এক্ষণে রাজধানীতে ফিরে চলুন। 嘯 • সন্ন্যাসী ঠাকুর্দা, পূৰ্ব্বেই তো বলেছিলেম পাঠশালা ছেড়ে পালিয়েচি, কিন্তু গুরুমহাশয় পিছন পিছন তাড়া ক’রেচেন। প্রভু এ কী কাও ! আমি তো স্বপ্ন দেখ চিনে ? ' সন্ন্যাসী স্বপ্ন তুমিই দেখচো কি এরাই দেখচেন তা নিশ্চয় ক’রে কে ব’ল্বে ?