পাতা:এলিজিবেথ.pdf/১৪৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

এলিজিবেথ ** 8 o' মহাত্মা ব্যক্তিকে বিশেষ পুরস্কার না দিয়া কদাচই ক্ষান্ত থাকিবেন না। ফলে ইনিও ধৰ্ম্মবলে আরও অধিক পুরস্কারের ভাজন হইতে পরিবেন তাহাতে সন্দেহ নাই।। এলিজিবেথ এই সংস্কৃত শ্মশানভূমিতে প্রায় সমস্ত দিন অবস্থিতি করিলেন। মনে মনে বিস্তুর শোক সন্তাপ করিয়াছিলেন কিন্তু কেহ ই জানিতে পারে নাই। শেষে সৰ্ব্বশক্তিমান পরমেশ্বরের নিকট প্রার্থনা করিয়া আপনিই আপন সন্তপ্ত হৃদয়ে শান্তি প্রদান করিলেন । ফলতঃ এই প্রকার শোকে অন্তঃকরণ নিতান্ত অভিভূত হইলে মৃত্যুচিন্তার সহিত স্বৰ্গীয় সুখভোগের চিন্তা অবশ্যই জন্মে, সুতরাং তাহাতে মহোপকারও উৎপন্ন হয়। মৃত্যু বিষয়ে চিন্ত৷ করিতে প্রবৃত্ত হইলে আমাদের মানভাবাপন্ন শৌর্য্য বীৰ্য্য প্রভূতি বৃত্তি সকল উত্তেজিত হইতে থাকে এবং সঙ্গে সঙ্গে স্বগীয় সুখের চিন্তাতে সাহস ও সাত্মনার উদয় হয়। আর প্রথমে যে ক্লেশ সহ কর নিতান্ত কঠিন বোধ হইয়াথাকে, ক্রমে ক্রমে তাহা তত ভয়ঙ্কর অনুভব হয় না। বিশেষতঃ সেই ক্লেশ ধৈর্য্য পুৰ্ব্বক সহ করিতে পারিলে, পরে উৎকৃষ্ট পুরস্কার লাভ হইবেক, ইহ। ভাবিলে তাহ তখন লঘুতর বোধ হয় | এলিজিবেথ ধৰ্ম্মপিতা মহাশয়ের জন্য মনে মনেই শোক সম্বরণ করিলেন, মৌখিক আর কিছুমাত্র প্রকাশ করিলেন না । তিনি তখন বিবেচনা করিয়া দেখিলেন, পরমেশ্বর অtমার প্রতি নিতান্ত সানুকুল ও যৎপরোনাস্তি প্রসন্ন ছিলেন, তাহাতেই আমার এই অৰ্দ্ধেক পথ অাস হ ইয়াছে। এক্ষণে তিনি তত অনুগ্রহ বিতরণ করা উপযুক্ত বোধ করিলেন না, .সুতরাং আমাকে নিতান্তই অসহায়িনী হইতে হইল , মনে মনে এই রূপ বিবেচনা করিয়া তিনি একান্তচিত্তে পরমেশ্বরকে ধন্যবাদ দিতে লাগিলেন, কিন্তু পুনৰ্ব্বার অধিক