পাতা:এলিজিবেথ.pdf/২৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

এলিজিয়েথ । &° না। যদি শুিঙ্গর কথন বাহির হইতেন, তাহা হইলে যাক বৎ ফিরিয়া না আসিতেন, তাবৎ তাহার পত্নীর ব্যাকুলত৷ ও উৎকণ্ঠার আর সীমাপরিশেষ থHকত না, বস্তুতঃ বিলম্ব হইলেই তাছার মনে হইত, হয়ত তিনি আবার কোন ভারী বিপদে পতিত হইয়াছেন। - . পৌষ মাসের প্রাতঃকাল, শীতের আর পরিশেষ নাই । বরফ পড়িয়া ভূমিপৃষ্ঠ আচ্ছন্ন হইতেছে, এমন সময়ে স্পিল্পর এক দিন বন্দুক বারুদ এবং ছিটে গুলি প্রভৃতি সঙ্গে লইয়া শিকার করিতে বাহির হইলেন।" বহির্গত হইবার পূৰ্ব্বে তিনি স্ত্রী ও কন্যার নিকট বিদায় লইয়া কহিলেন, “ আমি সন্ধ্যার মধ্যেই ফিরিয়া আসিতেছি,তোমর কোন মতে উদ্বিগ্ন হইও না।” ক্রমে ক্রমে দিব অবসান হইতে লাগিল । স্থৰ্য্য অস্তাচলে বসিলেন, দিভূমণ্ডলও অন্ধকারাচ্ছন্ন হুইতে আরম্ভ হইল, তথাপি স্পৃিঙ্গরের দেখা নাই। স্পৃিঙ্গর পূৰ্ব্বে যে মহা বিপদে পড়িয়াছিলেন, তদবধি তিনি কদাচ নির্দিষ্ট সময় অতিক্রম করিয়া আসিতেন না । সে দিন তাছার সেই সময় ব্যতিক্রম হওয়াতে ফেডোরা যৎপরোনাস্তি ব্যাকুল ও উৎকণ্ঠিত হইতে লাগিলেন। মাতার কাতরতা দেখিয়া এলিজিবেথও নিতান্ত কাতর হুইলেন। তিনি তখন মনে মনে ভাবিলেন এক্ষণে পিতার অন্বেষণে বাহির হওয়া অতি কৰ্ত্তব্য, কিন্তু তাহার মাত! যেরূপ রোদন করিতেছিলেন, তাহাকে তখন তদবস্থায় । একাকিনী রাখিয়া যাওয়াও তাহার অতিশয় কঠিন বোধ হইতে লাগিল । ফেডোরা স্বভাবতঃ বলিষ্ঠ এবং শক্ত সমর্থ ছিলেন না। কেবল সেই হ্রদের ধার ভিন্ন তিনি এ পর্য্যন্ত আর কুত্রাপি গমনাগমন করেন নাই, করিতে সমর্থও ছিলেন না, এক্ষণে তাহার বুকুলতা এত অধিক হইল যে তিনি পতির অন্বে