পাতা:এলিজিবেথ.pdf/৩৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

শুনিয়া ম্মোলফ উত্তর করিলেন, “এ কথা কিছু অপ্রমাণু" নয়, পরমেশ্বর তোমার কথায় কর্ণপাত না করিলে আমার এ পর্য্যন্ত আসা কদাচ ঘটিয়া উঠিত নু। তুমি নিজ গুণে অামাকে যা বলিতে চাও বল, কিন্তু আমার সামান্য উপকার কিছু এতাদৃশ মহা পুরস্কারের যোগ্য নয়।” । এই রূপে পরস্পর কথোপকথন হইতেছে, ক্রমে ক্ৰমে ৰনভূমি অন্ধকারে আচ্ছন্ন হইতে লাগিল। তৎকালে সেইমকায় ফিরিয়া যাইতে গেলে যুবক স্মোলফের পথিমধ্যে অনেক বিপদ ঘটিবার সম্ভাবনা। এদিকে"ম্প্রঙ্গর তবলস্কের শাসনপতির নিকটে প্রতিজ্ঞ করিয়া আসিয়াছিলেন, তিনি আপনার কুটীরে এক প্রাণীকেও আসিতে দিবেন না। এক্ষণে সহস। তিনি সেই প্রতিজ্ঞাই বা কি রূপে ভঙ্গ ও অবিশ্বাসের কৰ্ম্ম করিয়া, তাহাকে আপন কুটীরে প্রবেশিতে ও সে রাত্রি থাকিতে দেন। এবং কি প্রকারেই বা সেই প্রাণদাতার সম্মুখে কহিবেন আমি তোমাকে এ অসময়েও একটু স্থান দিতে পারিব না। ফলে এ বিষয়ে তিনি মহ। সঙ্কটেই পড়িলেন, সুতরাং মহা উৎকণ্ঠিত ও ভাবিত হইয়। অস্থির হইতে লাগিলেন। পরিশেষে স্পৃিঙ্গর স্পষ্ট না বলিয়া আর থাকিতে পারিলেন না । কহিলেন, “ ম্মেলফ মছাশয় । আমি একটা মসল জ্বালিয়। আপনাকে সেইমৃক পৰ্য্যন্ত অগিয়া রাখিয়া আসিতে সম্মত আছি। এখানকার কোন পথ ঘাট অামার অবিদিত নাই, আমি অনায়াসে আপনাকে পথ দেখাইয়া লইয়া যাইতে পারিব, এবং অাপনাকে নিরাপদে পইছাইয়া দিতেও সমর্থ হইব ।” ফেডোরা পতির কথা শুনিয়া অতিশয় ক্ষোভ প্রকাশ করিতে লাগিলেন। স্মোলফও সেই সময়ে কছিলেন, “মহাশয়! অনুগ্রহ করিয়া এই রাত্রিটির জন্য এই কুটীরে একটু স্থান দান করুন, নচেৎ অার উপায় নাই। আমার পিতা । - . . . р 2 - - . ,