পাতা:এলিজিবেথ.pdf/৬৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

७१. এলিজিবেথ । { খেন নাই, তাহাতে আবার তাহার অসাধারণ ঈশ্বরপ্রীতিও সপ্রমাণ হইয়াছিল। স্মোলফ এলিজিবেথকে এত দূর পর্যন্ত পিতৃভক্তি করিতে দেখিয়া, কিরূপে মনে করিতে পারেন, যে তিনি আপনার পিতার প্রাণদাতাকে বিশেষ রূপে ভাল বাসেন না। ফলে এ কথা কোন মতেই সম্ভব হইতে পারে না। - এলিজিবেথ চাতুরী কাহাকে বলে জন্মাবচ্ছিল্পে তাহ। কখনই শিক্ষা করেন নাই, সুতরাং তাছা করিতেও জানিতেন না। তিনি যেমন স্বাধীন, তেমনি সরল ছিলেন। মনের মধ্যে যে ভাবের উদয় হইত, তাহা কোন রূপে গোপন রাখিতে সমর্থ হইতেন না। ম্মোলফ এলিজিবেথকে পিতার অজ্ঞাতে পরামর্শ করিতে ইচ্ছুক দেখিয়া অত্যন্ত চমৎকৃত হইলেন। কিন্তু ইহার নিগুঢ় তত্ত্ব জানিতে না পারিয়া মনে মনে করিলেন যে এ কেবল অসাধারণ প্রণয়েরই কৰ্ম্ম। কিন্তু তাহ প্রকৃত নয়, ইহা কেবল পিতৃবাৎসল্যমাত্র । এমত স্থলে পরস্পর গোপনে দেখ৷ সাক্ষাৎ করিবার কথা শুনিলে লোকের মনে প্রোয় ভাবান্তর জন্মিতে পারে। কিন্তু এলিজিবেথের নিদোষিতার পক্ষে সে প্রকার সন্দেহ কোন ক্রমেই কর। যাইতে পারে না। এলিজিবেথ সাক্ষাৎ করিবার জন্য পুৰ্ব্বে যে স্থান নির্দিষ্ট করিয়াছিলেন, পরদিন তথায় যাইতে আর কিছুমাত্র বিলম্ব করিলেন না। ফলে তাহার মনের মধ্যে এমন কোন ভাবান্তর ছিল না, ষে তাছাকে শঙ্কা ও সঙ্কোচ করিয়া চলিতে হয় । বস্তুতঃ তৎকালে পিতার মুক্তির চেষ্টাতে যাওয়৷ হইতেছে বলিয়। পদে পদে তাহার দ্রুতগমনের পক্ষে কোন ব্যাঘাতই হইল না। স্কুর্য্যোদয়ে দিওঁমণ্ডল প্রকাশিত হইয়াছে এমত সময়ে এলিজিবেথ ভজনালয়ে যাইয়া উপস্থিত হইলেন। উপস্থিত