পাতা:ঐতিহাসিক চিত্র (প্রথম বর্ষ) - নিখিলনাথ রায়.pdf/১১১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


সীতারামের ধৰ্ম্ম প্ৰাণত OS ভ্ৰাজচ্ছিল্পৌঘযুক্তং রুচির রুচিহরে কৃষ্ণগোহং বিচিত্ৰং শ্ৰীসীতারাম রায়ো যদুপতিনগরে ভক্তিমানুৎসসৰ্জ ॥* ইহা হইতে বুঝা যায় যে “ভক্তিমান” সীতারাম রায় এই বিচিত্ৰ কৃষ্ণগৃহ নিৰ্ম্মাণ করেন। এখানে “ভক্তিমান” এই বিশেষণটি সীতারামের নামে অতি সুন্দরীরূপে প্ৰযুক্ত হইয়াছে। এখানে তঁহার বীরত্বের কথা নাই, রাজত্বের কথা নাই, এখানে আছে শুধু তঁহার ভক্তির কথা । তিনি ভক্তিগুণেই সূৰ্ব্বাপেক্ষা বিশেষত্ব লাভ করিয়াছিলেন। } কানাইনগরের মন্দির অতি মনোহর। কিন্তু মন্দিরের শিল্পকাৰ্য্যাদির বর্ণনা করা আমাদের বর্তমান প্ৰবন্ধের উদ্দেশ্য নহে। কানাইনগর হইতে প্ৰায় এক মাইল দূরে গোপালপুর গ্রামে সীতারামের প্রতিষ্ঠিত বুড়া শিবের এক ভগ্ন মন্দির এখনও বর্তমান রহিয়াছে। অবশ্য শিবলিঙ্গের পূজা সে মন্দিরে হয় না ; . নিকটবৰ্ত্তী একখানি ক্ষুদ্র টিনের ঘরে উক্ত লিঙ্গের দৈনিক পূজাদির কাৰ্য্য সমাহিত হইতেছে। সীতারামের রাজপ্রাসাদের সম্মুখভাগে তঁাহার প্রতিষ্ঠিত দোলমঞ্চ এখনও প্ৰকাণ্ড মনুমেণ্টের মত দণ্ডায়মান রহিয়াছে। দেবভক্ত । সীতারাম। এই সকল বিগ্রহের প্রত্যেকের সেবাদির জন্য কয়েক খানি করিয়া গ্রাম বৃত্তিস্বরূপ নির্দিষ্ট করিয়া দেন। রাজা সীতারাম ৪৪ পরগণার অধীশ্বর ছিলেন বলিয়া প্ৰবাদ আছে। তাহার মৃত্যুর পর তঁহার সেই সম্পত্তি নাটোরের রাজার করায়ত্ত হয়। পরে যখন সাধক প্রবর রামকৃষ্ণের অবহেলায় উক্ত সম্পত্তি নীলামে বিক্রীত হয়, তখন নলদি, সাতৈর, দিঘাপাতিয়া ও নড়াইল প্ৰভৃতি স্থানের স্বনামধন্য ভূম্যধিকারিগণ উহা ক্ৰয় করেন। কিন্তু দেবােত্তর সম্পত্তি নীলামে বিক্রয় হইতে পারে না, এজন্য সীতারামের প্রতিষ্ঠিত দেববিগ্ৰহ সকলের জন্য নির্দিষ্ট বৃত্তির সম্পত্তিগুলি নাটােররাজার হস্ত হইতে বিচ্যুত হয় নাই। সম্ভবতঃ 来源 শ্ৰদ্ধাস্পদ শ্ৰীযুক্ত অক্ষয়কুমার মৈত্ৰেয় মহোদয় উক্ত ফলক লিপি খানি স্বয়ং না দেখিয়া ওয়েষ্টল্যাণ্ড সাহেবের অনুসরণ করিয়া বৰ্ত্তমান শ্লোকটির কয়েক স্থানে ভ্রান্ত পাঠ যোজন! - করিয়াস্থেলসামরা স্বচক্ষে শিলালিপির পাঠোদ্ধার কারিয়া অবিকল এস্থলে প্ৰদান করিলাম। :