পাতা:ঐতিহাসিক চিত্র (প্রথম বর্ষ) - নিখিলনাথ রায়.pdf/১১২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


> O R वैडिश्ॉनिक 5िख । উপরোক্ত প্রকারে নীলামবিক্ৰয়ের সময়ে নির্দিষ্ট বৃত্তির সম্পত্তিগুলি ব্যতীত | আরও কতকগুলি গ্ৰাম দেবোত্তরের অন্তভুক্ত করিয়া দেখান হইয়াছিল। বৰ্ত্ত । মান সময়ে উক্ত দেবোত্তর সম্পত্তির মোট আয় ৮০ ০০২ টাকা ; এতন্মধ্যে দেব সেবার জন্য ২৩০০ টাকা এবং চাকরাণ, সরঞ্জাম ও মোকদ্দামা প্রভৃতি খরচ জন্য মোট ৪২০০১ টাকা ব্যয়িত হয়। অবশিষ্ট ১৫০০ টাকা সরকারের লাভ থাকে । প্ৰাতঃস্মরণীয়া রাণী ভবানীই এই সকল দেববিগ্রহের সেবার সুন্দর ব্যবস্থা করিয়া দিয়াছিলেন। আজিও তদনুসারে। কাৰ্য্য নির্বাহ হইতেছে। রাণী ভবানীর সময়েই র্তাহার কন্যা তারাসুন্দরী সীতারামের প্রাসাদের সন্নিকটে রামচন্দ্ৰ বিগ্ৰহ ও কানাইনগরে বলরাম বিগ্ৰহ প্ৰতিষ্ঠা করেন। এক্ষণে নিম্নলিখিত পাচ স্থানে দেবসেবার বন্দোবস্ত আছে ; প্ৰত্যেক স্থলের আনুমাণিক ব্যয় প্রদত্ত হইল । ১ । লক্ষ্মীনারায়ণ বিগ্রহের বাটী ) ২। দশভূজার বাটী S মোট বার্ষিক খরচ ১০৩৩\ ৩ । রামচন্দ্ৰ বিগ্রহের বাটী Vo(SN ৪। কানাইনগরের হরেকৃষ্ণ বিগ্রহের বাটী Cz' ৫ । গোপাল বুড়া শিবের বাটী s NOV মোট খরচ ২৩১৮ বৎসরের মধ্যে প্ৰতোক হিন্দুপর্বে এই সকল দেব মন্দিরে রীতিমত উৎসবান্দির অনুষ্ঠান হইয়া থাকে। রাজা সীতারামের সময়ে যে সকল উৎসব অনুষ্ঠিত হইত, রাণী ভবানীর সুব্যবস্থায় এখনও সেই সব উৎসব হয় ; তবে সে জাকজমক, ব্যয়বাহুল্য এবং বিরাট কাণ্ডকারখানা আর নাই। এখনও সেই বনাচ্ছিাদিত নিৰ্জন প্রদেশে শঙ্খ ঘণ্টার মধুর রোলে প্ৰাতঃ সন্ধ্যায় অমৃতবর্ষণ করিয়া থাকে। শাস্তির ক্ৰোড়ে নিদ্রারাম-সুখ সম্ভোগ করিতে করিতে যিনি নিস্তব্ধ উষায় এই সকল দেবালয়ের মঙ্গল আরতির মধুর নিনাদ শুনিয়া নেত্র, উন্মীলন করিবার অবকাশ পাইয়াছেন, তিনিই জানেন তখন তাহার হৃদয়ে