পাতা:ঐতিহাসিক চিত্র (প্রথম বর্ষ) - নিখিলনাথ রায়.pdf/১১৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


to 8 ঐতিহাসিক চিত্ৰ । খনিত হইয়াছিল। উহা এখনও স্বচ্ছ সুপেয় সলিলপূর্ণ তাড়াগসম বিস্তীর্ণ রহি য়াছে, ইহাই ছিল যমুনা নদী। রাজপ্রাসাদে প্রতিষ্ঠিত লক্ষ্মীনারায়ণ শিলাকে রথোৎসবে ও অন্যান্য পর্বে উক্ত পরিখার তীরবত্তী প্ৰশস্ত পথে রথারোহণে লইয়া যাওয়া হইত এবং পরে তিনি সুন্দর ময়ুরপঙ্খী তরণীতে কল্পিত কালন্দী পার হইয়া কানাইনগরে গিয়া কিছু দিন বাস করিতেন। প্ৰবল শত্রুর সহিত যুদ্ধবিগ্রহের মধ্যেও এই সকল পুরাণসম্মত আনন্দলীলা সীতারামের পরম ভক্ত প্ৰজাবৰ্গকে সৰ্ব্বদা আনন্দসাগরে নিমজ্জিত করিয়া রাখিত। সীতারামের এই সকল উৎসবের প্রকৃত তত্ত্ব অনুসন্ধান করিলে তঁহাকে ভক্তপ্ৰাণ পরম হিন্দু বলিয়া সন্দেহ করিবার কারণ থাকে না । যিনি সৰ্ব্বদা সন্ধ্যাবন্দনা, জপতপঃ ও পর্বোৎসবে কালাতিপাত করিতেন, দেবতা ব্ৰাহ্মণের প্রতি যাহার অপার ভক্তি ছিল, প্ৰজাসাধারণের দুঃখ দূরীকরণের জন্য যিনি অজস্র অর্থ বর্ষণ করিতেন, র্যাহার কীৰ্ত্তিচিহ্নসকল বহু শতাব্দী পরে এখনও নানা স্থানে বৰ্ত্তমান রহিয়াছে, তিনি কিরূপে বিলাসবিভ্রাটে ইন্দ্ৰিয়সেবায় ঘুণিত কামুকের মত কাল যাপন করিতেন, তাহা খুজিয়া পাই না। সীতারামের যে ঔপন্যাসিক ইতিবৃত্ত আমরা পাইয়াছি, তাহার অধিকাংশই অলীক। প্ৰকৃত ইতিহাসের মৰ্য্যাদা যদি অক্ষুন্ন থাকে, তবে সীতারামের প্রকৃত চরিত্রও একদিন গল্প গুজবের তামসাবরণ হইতে মেঘবিনিম্মুক্ত শশিসম সুপ্ৰকাশিত হইয়া পড়িবে। ব্ৰাহ্মণের প্রতি ভক্তি হিন্দুর ধৰ্ম্মজীবনের একটি অঙ্গবিশেষ। ব্ৰাহ্মণের প্রতি সীতারামের অচলা ভক্তি ছিল। পূর্বেই কথিত হইয়াছে যে, সীতারাম স্বয়ং বিষ্ণুমন্ত্রে দীক্ষা গ্ৰহণ করেন। মুর্শিদাবাদ হইতে কৃষ্ণবল্লভ গোস্বামী নামক এক প্রবীণ, শাস্ত্ৰপারদর্শী এবং পরম ভক্ত ব্ৰাহ্মণ মহম্মদপুৱাঞ্চলে আগমন করেন। তিনি কায়স্থের দানগ্রহণ বা কায়স্থকে দীক্ষাদান করিতে স্বীকৃত হন। নাই। সীতারাম নানা কৌশলে অবশেষে তঁাহাকে গুরুপদে বরণ করিতে সক্ষম হইয়াছিলেন। গুরুদেবকে তিনি দেবতার মত ভক্তি করিতেন ; এ তথ্যটি বঙ্কিমচন্দ্রের উপন্যাসেও সমর্থিত হইয়াছে। পাঠক জানেন, চন্দ্রচূড়ের প্ৰতি সীতারামের ভক্তি কত প্ৰগাঢ় ছিল। কথিত আছে, গুরুদেব কৃষ্ণবল্লাভের