পাতা:ঐতিহাসিক চিত্র (প্রথম বর্ষ) - নিখিলনাথ রায়.pdf/১৩৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


२२9 ঐতিহাসিক চিত্ৰ । অপ্রচুর। যাহা কিছু এ পৰ্যন্ত আবিষ্কৃত হইয়াছে, তাহাতে কৌতুহল নিবৃত্ত হয় নাই ; বরং তর্ককোলাহল উত্তরোত্তর প্রবল হইয়া উঠিতেছে! যে সকল পুরাতন গ্রন্থে এই যুগের ইতিহাস সংকলনের উপকরণ প্ৰাপ্ত হইবার সম্ভাবনা আছে, তন্মধ্যে “দান-সাগরের” নাম সুধী-সমাজে সুপরিচিত। স্মাৰ্ত্তচূড়ামণি রঘুনন্দন ভট্টাচাৰ্য্য স্বকৃত “অষ্টাবিংশতি তত্ত্বের” স্থানে স্থানে “দানসাগর” হইতে প্রমাণ উদ্ধত করায়, এই গ্ৰন্থ যে বঙ্গদেশে প্রামাণিক বলিয়া স্বীকৃত হইত, তাহার পরিচয় প্রাপ্ত হওয়া যায়। রঘুনন্দনের কৃপায়ু “দানসাগরের” নাম বঙ্গীয় পণ্ডিতসমাজে সুপরিচিত থাকিতেও, মূল গ্ৰন্থ নিতান্ত দুপ্ৰাপ্য হইয়া উঠিয়াছিল। এখনও যে সকল হস্তলিখিত “দানসাগর” দেখিতে পাওয়া যায়, তাহাতেও পাঠান্তর এবং ভ্রম প্রমাদের অভাব নাই। কলিকাতার সাহিত্যসভা “দানসাগর" মুদ্রিত করিবার চেষ্টা করিয়া ইতিহাস পাঠকগণের ধন্যবাদের পাত্ৰ হইলেও, এরূপ কাৰ্য্যের ভার যোগ্যতার হস্তে ন্যস্ত করা উচিত ছিল । “দানসাগর” সুবৃহৎ গ্ৰন্থ ; স্বৰ্গীয় ডাক্তার রাজেন্দ্রলাল মিত্ৰ মহোদয় তাহার সংক্ষিপ্ত পরিচয় প্রদান করিয়া গিয়াছেন। ইহার বিস্তৃত আলোচনা প্ৰকাশিত হওয়া আবশ্যক । “দানসাগর” গ্রন্থ গোঁড়াধিপতি স্বনামখ্যাত রাজাধিরাজ বল্লালসেনদেবের সঙ্কলিত বলিয়া সুপরিচিত । যে যুগে বৌদ্ধপ্ৰতাপ তিরোহিত হইবার পর, ধীরে ধীরে বঙ্গদেশে ব্ৰাহ্মণ্যধৰ্ম্ম পুনঃপ্রতিষ্ঠিত হইবার সূত্রপাত হইয়াছিল, ইহা সেই যুগের গ্ৰন্থ বলিয়া, নানা ঐতিহাসিক তথ্যের আধার হইয়া রহিয়াছে। , বৌদ্ধাধিকার তিরোহিত হইবার অত্যািল্ল কাল পরেই, আৰ্য্যাবৰ্ত্তে মুসল্মমানাধিকার প্রবত্তিত হইয়াছিল। তজ্জন্ত আৰ্য্যাবৰ্ত্তে ব্ৰাহ্মণ্যধৰ্ম্ম পুনঃ প্রতিষ্ঠিত করিবার যথোপযুক্ত অবসরের অভাবে, সে ভার দাক্ষিণাত্যের উপরেই নিপতিত। হয়। ব্যাকরণের উন্নতিসাধন করিয়া, সংস্কৃত সাহিত্যের উৎসাহবদ্ধন করিয়া, বেদাভায্যের প্রচার করাইয়া, দক্ষিণাত্য অন্যাপি ব্ৰাহ্মণ্যধৰ্ম্ম পুনঃপ্রতিষ্ঠিত করিবার মূল কারণ বলিয়া ইতিহাসে উল্লিখিত হইয়া আসিতেছে। অনেকের বিশ্বাস,-দাক্ষিণাত্যনিবাসী স্বনামখ্যাত সায়নাচাৰ্য্যের পূৰ্ব্বে বেদমন্ত্রের ঢষ্য