পাতা:ঐতিহাসিক চিত্র (প্রথম বর্ষ) - নিখিলনাথ রায়.pdf/১৬৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ব্ৰাহ্মণ-সৰ্বস্ব । -29s “দীপাবৎ দ্যোতয়তি যে ভু-ভুবঃ-স্বজগত্ৰয়ীং । সবিতু স্তং বিয়ং ভার্গ মপবর্গ করং স্তমঃ ॥” এই ব্ৰাহ্মণোচিত নমস্কার-শ্লোকে মহামহোপাধ্যায় পূজ্যপাদ হলায়ুধ “ব্ৰাহ্মণসৰ্ব্বস্ব” নামক যে সুবিখ্যাত গ্রন্থের মঙ্গলাচরণ লিপিবব্ধ করিয়া গিয়াছেন, তাহা মুসল্মান-শাসন প্ৰবৰ্ত্তিত হইবার অব্যবহিত পূৰ্ব্ববৰ্ত্তী বঙ্গভূমির ইতিহাসসংকলনোপযোগী বিবিধ উপাদেয় উপকরণ রাশির আধার হইয়া, সুবী-সমাজের বরণীয় হইয়া রহিয়াছে। এই গ্ৰন্থ অদ্যাপি বঙ্গদেশে প্রচলিত থাকিলেও, বটতলা ভিন্ন অন্য কোন সুসংস্কৃত মুদ্রাযন্ত্রের মুখ দর্শন করিবার সৌভাগ্যলাভ করে নাই। ভ্ৰম-প্ৰসাদে সমাচ্ছন্ন হইয়া নিরতিশয় দুষ্পাঠ্য হইলেও, হলায়ুধের “ব্ৰাহ্মণ-সৰ্ব্বস্বই” যজুৰ্ব্বেদান্তর্গত বঙ্গীয় ব্রাহ্মণসমাজের সর্বপ্রকার ক্রিয়াকাণ্ডের সৰ্ব্বপ্রধান ব্যবস্থা গ্ৰন্থ বলিয়া সুপরিচিত । ইহাতে গাত্ৰোখান, দস্তধাবন, প্ৰাতঃস্নান হইতে আরম্ভ করিয়া শ্ৰাদ্ধ পৰ্য্যন্ত সমগ্ৰ নিত্য নৈমিত্তিক ক্রিয়াকলাপের বিবরণ সন্নিবিষ্ট আছে। তাহাতে সেকালের সামাজিক রীতিনীতি ও • সদাচার-পদ্ধতির সবিশেষ বিবরণ প্ৰাপ্ত হওয়া যায়। হলায়ুধের স্পনাম বঙ্গদেশে সুপরিচিত হইলেও, তাহার প্রকৃত পরিচয় গুপ্ত হইয়া পড়িয়াছে। তিনি ভট্টনারায়ণ-বংশোৎপন্ন বলিয়া নানা প্ৰবন্ধে ও গ্রন্থে উল্লিখিত হইতেছেন। ভট্টনারায়ণ সাণ্ডিল্য গোত্রের ব্ৰাহ্মণ । হলায়ুধ বাৎসগোত্রীয় । তথাপি সাণ্ডিল্য-গোত্রীয় সুৰিখ্যাত ঠাকুরবংশীয় প্ৰধান পুরুষ- , গণের উৎসাহে তঁহাদের যে বংশ-বিবরণী প্ৰকাশিত হইয়াছে, তাহাতে হলা- ৷ যুদ্ধও তাঁহাদের পুর্বপুরুষ রলিয়া উল্লিখিত হইয়াছেন। : “ব্ৰাহ্মণসূৰ্ব্বক্স" গ্রন্থে,