পাতা:ঐতিহাসিক চিত্র (প্রথম বর্ষ) - নিখিলনাথ রায়.pdf/১৮৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


Sy ፵፡ ঐতিহাসিক চিত্ৰ । রাজস্ব বিষয়ে প্রধান দেওয়ান নিযুক্ত হন। যাহাতে শাসনকাৰ্য্য সুচারুরূপে পরিচালিত হয়, তাহার জন্য সুজাউদ্দীন একটি মন্ত্রিসভা গঠিত করিলেন। হাজী আহম্মদ, আলীবর্দী খাঁ, জগৎশেঠ ফতেচাদ ও রায়রাইয়া আলমচাঁদ ইহার সভ্য নিযুক্ত হইলেন। নবাব তাহদের সহিত পরামর্শ করিয়া সমস্ত কাৰ্য্যই করিতে লাগিলেন। হাজী আহম্মদ সাধারণতঃ উজীরের কাৰ্য্য করিতেন। আলীবর্দীর প্রতি যুদ্ধসংক্রান্ত বিষয়ের ভার ছিল, আর রাজস্ব সম্বন্ধীয় সমস্ত কাৰ্য্যই রায়রাইয়া ও জগৎশেঠ করিতেন। আলমচাঁদই প্ৰকৃত প্ৰস্তাবে রাজস্ববিষয়ে প্রথম দেওয়ান নিযুক্ত হন। আলমৰ্চাদেব পূর্বে এ বিষয়ের) কোন পৃথক পদ ছিল না। ইহার পূৰ্ব্বে কোন কোন কৰ্ম্মচারী রাজস্ব বিষয়েরও কাৰ্য্য করিতেন, কিন্তু এই সময় হইতে উক্ত স্বতন্ত্র পদের সৃষ্টি হয় ; কোম্পানীর সময় পৰ্যন্ত এই স্বতন্ত্র পদটি প্রচলিত ছিল । রাজস্ব সচিব বা দেওয়ানেরা প্ৰায় সকলেই রায়রাইয়া উপাধি প্ৰাপ্ত হইতেন। রাজস্ব বিষয়ে তাহাবাই । সৰ্ব্বেসৰ্ব্ব ছিলেন। জগৎশেঠ পূর্বের ন্যায় পেস্কারের কার্য্য করিতেন। জনীদারেরা ও অন্যান্য ভূম্যধিকারীরা তঁহাদের দ্বারা নবাব দরবারে রাজস্ব দাখিল করিতেন, এবং তাহারাই প্ৰধান কোষাধ্যক্ষের কাৰ্য্যও করিতেন। সরকারী প্রায় সমস্ত টাকাই তাহদের নিকট জমা থাকিত। আবার তাহদের দ্বারাই দিল্লীতে রাজস্ব প্রেরিত হইত। ফলতঃ রাজস্ব বিষয়ে রায়রাইয়া ও জগৎশেঠ এই দুই জনই কর্তৃস্বরূপ ছিলেন। রাজস্ব বিষয়ে আরও অনেক কৰ্ম্মচারী; ছিলেন, তন্মধ্যে কাননগোগণই প্ৰধান, ইহাদের নিকট জমা, জমীর কাগজ পত্র, হিসাব, নিকাসাদি সমস্তই থাকিত। সদরে দুইজন কাননগো ছিলেন, তন্মধ্যে প্রথম কাননগোগণ বাদশাহের নিকট হইতে বঙ্গাধিকারী উপাধি প্ৰাপ্ত হইতেন। এই বঙ্গাধিকারিগণ এককালে রাজস্ব বিষয়ে সৰ্বেসৰ্ব্ব ছিলেন। মন্ত্রিসভার সভ্যগণের কৰ্ত্তব্য সাধারণতঃ পৃথক হইলেও, রাজ্যশাসনসম্বন্ধে প্ৰাৰ সমস্ত কাৰ্য্যই তঁাহারা সকলে পরামর্শ করিয়া করিতেন, এবং নবাব তাহদের পরামর্শক্রমেই কাৰ্য্য করিতেন । A 爱 পূর্বে উল্লিখিত হইয়াছে যে, নবাব মুর্শিদকুলী খাঁ রাজস্ব বৃদ্ধির জন্য বাঙ্গা