পাতা:ঐতিহাসিক চিত্র (প্রথম বর্ষ) - নিখিলনাথ রায়.pdf/২২০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ミのや ঐতিহাসিক চিত্ৰ । রাণী স্বীয় সৈন্যদিগের এইরূপ অবস্থা দেখিয়া তাহাদিগকে দণ্ডায়মান হইতে আদেশ দিলেন। পরে নূতন শ্রেণী গঠিত করিয়া তাহাদিগকে ধীরে ধীরে ও সমবেতভাবে অগ্রসর হইতে বলিলেন, এবং রাজহস্তী হইতে নিশানা পাইলে শত্ৰুপক্ষকে আক্রমণ করিবে এইরূপ উপদেশ দিলেন । এইরূপে তাহারা মোগল বাহিনীর সম্মুখীন হইল। আচিরকালমধ্যে উভয় পক্ষে ঘোরতর যুদ্ধ বাধিয়া উঠিল । রাণীর সৈন্যগণ এরূপ উৎসাহে মোগলদিগকে আক্রমণ করিল যে, তাহারা তাহদের গতিরোধ করিতে সমর্থ হইল না ! ক্ৰমে ক্ৰমে মোগলবাহিনী পশ্চাৎপদ হইতে আরম্ভ করিল । প্ৰায় ছয় শত * মোগল রাণীর সৈন্যের বর্ষা, তরবারি ও শরাঘাতে ধরিত্রীক্ৰোড়ে আশ্রয় গ্ৰহণ করিল। তাহদের অদম্য উৎসাহ যেন মোগলবাহিনীকে একেবারে বিধ্বস্ত করিবার জন্য চেষ্টা করিতে লাগিল । ক্ৰমে মোগলগণ ছত্রভঙ্গ হইয়া চতুর্দিকে ধাবমান হইল। রাণীও সসৈন্যে তাহদের পশ্চাদ্ধাবিত হইয়া তাহাদিগকে বহুদূরে নিশুক্রান্ত করিয়া দিলেন । মোগলগণ পলায়ন করিলে, রাণী স্বীয় সৈন্যদিগকে হস্তপদাদি ধৌত 2 কিয়ৎক্ষণ বিশ্রামের জন্য আদেশ প্ৰদান করিলেন, তাহারা বিশ্রামলাভে ব্যাপৃত হইলে তিনি স্বীয় কৰ্ম্মচারিগণকে আহবান করিয়া অতঃপর কি কৰ্ত্তব্য তাহার পরামর্শ আরম্ভ করিলেন । রাণী প্ৰস্তাব করিলেন যে, মোগলদিগকে সময় দেওয়া কদাচ 'যুক্তিযুক্ত নহে। তাহাদিগকে অদ্যই নৈশ আক্রমণের দ্বার: উত্যক্ত করাই উচিত । সময় পাইলে তাহারা অত্যন্ত অনর্থ ঘটাইয়া বসিবে } কিন্তু তাহারা এমন কি তঁহার প্রধান কৰ্ম্মচারী অধরা পৰ্য্যন্ত তাহাতে সন্মতি দান করিলেন না। র্তাহারা অগ্ৰে মৃত্যুদিগের সৎকার কৰ্ত্তব্য বলিয়া প্ৰকাশ করিলেন । রাণী অগত্যা সম্মত হইয়া মৃতদিগের সৎকারের জন্য আদেশ দিলেন। ‘মৃতদিগের দেহ ভস্মীভূত হইলে তিনি পুনর্বাের তঁহাদিগকে নৈশ আক্রমণের জন্য উত্তেজিত করিতে লাগিলেন, কিন্তু কেহই এই সাহসিক কৰ্ম্মে অগ্রসর হইতে উৎ সাহ প্ৰকাশ করিল না । তাহারা মনে করিয়াছিলেন, যে মোগলেরা যেরূপ

  • ফৈজি সারহিন্দের মতে ৩ শত মোগল ধরাশায়ী হইয়াছিল।