পাতা:ঐতিহাসিক চিত্র (প্রথম বর্ষ) - নিখিলনাথ রায়.pdf/২৪০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


TSCe पेंडिशनिक द्धि ।' প্রতিনিবৃত্ত হওয়ার জন্য বারম্বার প্রার্থনা ও নানাপ্রকার মিনতি করিতে লাগিলেন । জগৎশেঠ নবাবকে এইরূপ বুঝাইতে লাগিলেন যে, নবাব હરે প্ৰস্তাব পরিহার না করিলে জগৎশেঠবংশের সন্মান ও মৰ্য্যাদার যার পর নাই। হানি হইবে, এবং তঁাহার বংশ চিরকাল কলঙ্ক বহন করিয়া স্বজাতীয়গণের মধ্যে হেয় বলিয়া পরিগণিত হইবে । নবাবের নিকট এই সমস্ত কথা বলিতে বলিতে বৃদ্ধ জগৎশেঠের চক্ষুঃ অশ্রুপরিপূর্ণ হইয়া উঠিল, কিন্তু নবাব তাহার প্রার্থনায় বা অশ্রুবর্ষণে বিচলিত না হইয়া জগৎশেঠর বাটী বেষ্টন করার জন্য কতকগুলি আশ্বারোহী সৈন্যকে আদেশ প্ৰদান করিলেন । কিন্তু জগৎশেঠেয় নিকট পুনৰ্ব্বার প্রতিজ্ঞা করিয়া বলিলেন যে, তিনি তাহার পৌত্রবধূকে পাঠাইয়া দিলে, নবাব একবার মাত্র তাহাকে দর্শন করিয়াই নির্বিঘ্নে জগৎশেঠের ভূবনে পৌছাইয়া দিবেন। জগৎশেঠ যখন দেখিলেন যে, নবাব কিছুতেই প্রতিনিবৃত্ত হইতেছেন না, তখন তিনি মনে মনে এইরূপ চিন্তা করিলেন যে, এক্ষণে অসম্মতি প্ৰকাশ করিলে নবাব নিশ্চয়ই বলপূর্বক তঁহার গৃহবধূকে আনয়ন করিবেন, এবং উক্ত ব্যাপার লইয়া সমস্ত মুর্শিদাবাদে গোলযোগ উপস্থিত হইলে তাহার বংশের কলঙ্ক দেশবিদেশে প্ৰচারিত হইয়া পড়িবে। সুতরাং এরূপ স্থলে গোপনে উক্ত বালিকাকে প্রেরণ করাই শ্ৰেয়ঃ । এইরূপ বিবেচনা করিয়া জগৎশেঠ নবাবের প্রস্তাবে পরিশেষে সন্মতি প্ৰদান করিলেন । রাত্ৰিযোগে গুপ্তভাবে সেই বালিকারত্ন নবাবের নিকট আনীত হইলে, নবাব তাহার অসামান্য রূপ-সুধাপানে দর্শনেন্দ্ৰিয়ের পিপাসা মাত্রই নিবারণ করিয়া তাহাকে প্রতিনিবৃত্ত হইতে আদেশ প্রদান করিলেন। সরফরাজ কেবল কৌতুহলপরবশ হইয়াই সেই বালিকাকে দেখিবার ইচ্ছা করিয়াছিলেন, সেই জন্য তাহার দর্শনমাত্ৰ করিয়াই তাহাকে স্পর্শ না করিয়া স্বভবনে যাওয়ার অনুমতি প্ৰদান করেন। কিন্তু সেই বালিকা নবাব প্রাসাদ হইতে প্ৰতিনিবৃত্ত হইলে তাহার স্বামী তাহাকে নিজের গৃহলক্ষ্মী করিতে ইচ্ছা প্ৰকাশ করেন নাই । জগৎশেঠ ফতেচাদ বাধ্য হইয়া নবাব সরফরাজ্যের প্রস্তাবে সন্মতি প্ৰদান করিলেও তিনি নবাবের প্রতি মনে মনে যারপরনাই বিরক্ত ও ক্রুদ্ধ হন।