পাতা:ঐতিহাসিক চিত্র (প্রথম বর্ষ) - নিখিলনাথ রায়.pdf/২৪৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


Svoo ঐতিহাসিক চিত্ৰ । শেঠদিগের গদীতে গচ্ছিত ছিল, তিনি অথবা নবাব সুজাউদ্দীন কখন, তাহা ফিরাইয়া লন নাই । সরফরাজ ইহার সংবাদ জানিতে পারিয়া জগৎশেঠ ফতে চাদকে উক্ত টাকা প্ৰত্যপণের জন্য অত্যন্ত পীড়াপীড়ি করেন । ৰি ফতে চাদ তাহা একেবারে অস্বীকার করায়, সরফরাজ র্তাহার প্রতি যারপরনাই অসন্তুষ্ট ও বিরক্ত হন, এবং তঁহাকে লাঞ্ছিত ও অবমানিত করিমে, চেষ্টা করেন । জগৎশেঠ ও সরফরাজের ব্যবহারে অসন্তুষ্ট হইয়া তাহার বিরুদ্ধাচরণে প্ৰবৃত্ত হন । শেঠবংশীয়দিগের কথিত বিবরণ জগৎশেঠ নবাবের মধ্যে বিবাদ উপস্থিত হওয়ার পক্ষে নিতান্ত সামান্য কারণ নহে। নবাব মুর্শিদকুলি খাঁর গচ্ছিত অৰ্গ প্ৰত্যাৰ্পণ না করা শেঠবংশীয়দিগের পক্ষে যারপর নাই অন্যায় কাৰ্য্য হইয়াছিল। ইহা স্বীকার করিতেই হইবে । উক্ত ঘটনা প্ৰকৃত হইলে উহা জগৎশেঠবংশের একটি প্ৰধান কলঙ্ক বলিয়া নির্দেশ করা যাইতে পারে । কিন্তু উক্ত টাকা। গচ্ছিত থাকার যদি কোন প্ৰমাণ না থাকে অথবা তাহা প্ৰকৃত না হয়, এবং যদি নবাব সরফরাজ খাঁ জগৎশেঠের প্রতি অন্যায় রূপ অত্যাচার করিয়া থাকেন, তাহা হইলে ইহা যে তঁহার পক্ষে যারপর নাই নিন্দার বিষয় তাহাতে কোনই সন্দেহ নাই, এবং তঁাহার অন্যায় ব্যবহারে অসন্তুষ্ট হইয়া জগৎশেঠের তাহার বিরুদ্ধাচরণ করা নিতান্ত অসঙ্গত নহে । তবে ফতেচাদ যেভাবে সরফরাজের বিরুদ্ধাচরণ করিয়াছিলেন, তাহারও সমর্থন করা যায় না । শেঠদিগের কথিত উক্ত বিবরণ ও দেশীয় কোন গ্রন্থে দৃষ্ট হয় না, সুতরাং ইহা ও কতদূর সত্য তাহা আমরা স্থির করিয়া বলিতে পারি না । এই দুষ্ট বিবরণের মধ্যে ইংরাজ ঐতিহাসিকগণের কথিত বিবরণ গুরুতর হওয়ায়, দেশীয় কোন গ্রন্থে তাহার উল্লেখ না থাকায় উক্ত ঘটনার বিশ্বস্ততা সম্বন্ধে সন্দেহের মাত্ৰাটা কিছু অধিক হইয় পড়ে এবং শেঠদিগের বর্ণিত বিবরণ সম্ভবতঃ দেশীয় গ্ৰন্থকারের তেমন গুরুতর মনে না করিয়া আপন আপন গ্রন্থে লিপিবদ্ধ করেন নাই। কিন্তু নবাব ও জগৎশেঠের মধ্যে বিবাদ উপস্থিত হওয়ার পক্ষে উহা নিতান্ত সামান্য কারণ নহে। ফলতঃ যে কারণে হউক, সরফরাজের ব্যবহারে অসন্তুষ্ট হইয়া জগৎশেঠ