পাতা:ঐতিহাসিক চিত্র (প্রথম বর্ষ) - নিখিলনাথ রায়.pdf/৩৩৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


oro ঐতিহাসিক চিত্ৰ । ডালহৌসীর রাজ্যগ্রাস-পিপাসা যে ইহার মূল কারণ, ইহাই সকলেই অনুমান করিয়া থাকেন। অযোধ্যা, সেতারা, পুনা প্ৰভৃতি রাজ্য বিপুল ব্রিটিশ সাম্রাজ্যের সহিত অঙ্গীভূত করিয়া তিনি ভারতের রাজন্য বর্গের মধ্যে এক ভীষণ বিদ্বেষের সৃষ্টি করেন, এবং প্ৰত্যাখ্যাত রাজন্যবৃন্দ ইহার প্রতিকারের জন্য সুযোগ অন্বেষণে ব্যাপৃত হন । সেই সময়ে ধৰ্ম্মান্ধি হিন্দু ও মুসলমান সিপাহীগণ গব্য ও শৌকির চর্বিমিশ্রিত টোটা কাটায় স্ব স্ব ধৰ্ম্মনাশের আশঙ্কায় কোম্পানীর বিরুদ্ধে উখিত হওয়ায়, প্ৰত্যাখ্যাত রাজন্য বর্গের সহিত তাহদের মিলন সংঘটিত হয় । এই মিলনে তাহারা এই ভয়াবহ বিদ্রোহের অবতারণা করিয়াছিল ইহাই সাধারণ কারণ বলিয়া কল্পিত হইয়া থাকে । কিন্তু কাবুল ও ট্রান্সভাল বিজয়ী ‘সিপাহী-জেনেরোল” লর্ড রবার্টস্ ও ঐতিহাসিক তথ্যানুসন্ধানপর ফরেষ্ট প্রভৃতি অনুমান করিয়া থাকেন যে, ঐ সমস্ত কারণ ব্যতীত কোম্পানীর শাসনকর্তৃগণের কঠোর নীতিবলে হিন্দুদিগের ধৰ্ম্মসন্মত অনেক প্রথার রোধ হওয়ায় ও পাশ্চাত্য শিক্ষা ও সভ্যতায় ব্ৰাহ্মণদিগের অপরিসীম ক্ষমতার হ্রাস হওয়ায় জনসাধারণের মধ্যে এক মহা অশান্তির সৃষ্টি হইয়াছিল । এই অশান্তি ক্ৰমে হিন্দু বিশেষতঃ ব্ৰাহ্মণ সিপাহীদিগের হৃদয়ে ও স্থান পাইয়াছিল। তাহার পর পুরাতন বন্দুকের পরিবর্তে এনফিল্ড রাইফল প্ৰচলিত হওয়ায় তাহার টোটার জন্য যে সমস্ত উপকরণের প্রয়োজন হইয়াছিল, তাহা হিন্দু ও মুসলমান উভয় জাতীয় সিপাহীদিগের পক্ষে অপবিত্র হওয়ায় তাহারা কোম্পানীর বিরুদ্ধে উত্থিত হয়। ঐ সমস্ত কঠোরনীতি মুসলমানদিগের কোন প্রথার প্রতি তাদৃশ হস্তক্ষেপ না করায় তাহদের উত্তেজিত হওয়ার বিশেষ কোন কারণ ছিল না। কিন্তু লর্ড রবার্টস বলিতে চাহেন যে, রাজস্ব বিষয়ের নুতন বন্দোবস্ত হওয়ায়, হিন্দু মুসলমান উভয় জাতিই কোম্পানীর বিরুদ্ধে বিদ্বেষভাব পোষণ করিতে আরম্ভ করে। এই বন্দোবস্তে কোম্পানীই প্ৰকৃত প্ৰস্তাবে জমীর অধিকারী হওয়ায় জমীদারবর্গ অসন্তুষ্ট হন। আমরা স্থানান্তরে দেখাইব যে, লর্ড রবার্টসের এ যুক্তি অকিঞ্চিৎকর। মুসলমান রাজত্ব অপেক্ষ ব্রিটিশ রাজত্বে জমীদারেরা যে জমী সম্বন্ধে উত্তমরূপ অধিকার