পাতা:ঐতিহাসিক চিত্র (প্রথম বর্ষ) - নিখিলনাথ রায়.pdf/৮৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


সজীব বুদ্ধ। ۶-همge موس হিমালয়ের সানুপ্ৰদেশস্থ কোন ক্ষুদ্র নগরের রাজ-সন্ন্যাসীর যে ধৰ্ম্মমত সমস্ত এসিয়াখণ্ডে জ্ঞান ও শাস্তির মহাপ্লাবন আনয়ন করিয়াছিল, আজিও তাহার সজীব ধারা অৰ্দ্ধ এসিয়ার মানবমণ্ডলীকে সঞ্জীবিত করিয়া রাখিয়াছে। যাহার নিকট প্রৰিল পরাক্রান্ত অশোক, কুবলে খ্যা ও বর্তমান মুটুসুহিটো মস্তক অবনত করিয়াছেন, তাহার অস্তিত্ব অদ্যাপি যে বিদ্যমান থাকিবে, ইহা কে না । স্বীকার করিবে ? ফলতঃ ভারতবর্ষে বৌদ্ধধৰ্ম্মের বিশেষ কোন রূপ নিদর্শন না থাকিলেও তাহার বহির্ভাগে এখনও ইহার সম্পূর্ণ প্রভাব লক্ষিত হয়। এখনও বৌদ্ধধৰ্ম্ম চীন, জাপান ও শ্যামের রাজধৰ্ম্ম বলিয়া বিঘোষিত। এখনও তিব্বত ও মোঙ্গলিয়ায় ইহার সম্পূর্ণ প্রভাব বিদ্যমান। এখনও তথাকার সন্ন্যাসিগণ বৌদ্ধধৰ্ম্মের জন্য জীবন উৎসর্গ করিতে কুষ্ঠিত নৰেন। ইংরেজের তিব্বতপ্রবেশে তিব্বত ও মোঙ্গলিয়ায় যে আশঙ্কার স্বষ্টি হইয়াছে, তাহা হইতে বুঝা যায় যে, নিৰ্জীব হিন্দুধৰ্ম্মের ন্যায় বৌদ্ধধৰ্ম্ম এখনও প্রাণহীন হয় । নাই। কারণ উদীচ্য বৌদ্ধগণ এখনও স্বধৰ্ম্ম রক্ষার জন্য বিচলিত হইয়াছেন। আর আমরা স্বধৰ্ম্মকে নিৰ্ব্বাসিত করিয়া বিলাসের অলস ক্ৰোড়ো ঢলিয়া পড়ি, . তেছি । কিন্তু তিব্বত ও মোঙ্গলিয়ার বৌদ্ধগণের আশঙ্কার বিশেষ কোন কারণ আছে বলিয়া আমরা মনে করি না । ইংরেজ যে সহসা তাহদের ধৰ্ম্ম মলিন করিয়া তুলিবেন, এরূপ বোধ হয় না। তবে পাশ্চাত্য সভ্যতার প্রভাব অখণ্ডনীয় । উত্তরপ্রদেশস্থ বৌদ্ধধৰ্ম্ম যেমন সজীব, ইহার নেতৃগণও সেই রূপ বুদ্ধের সজীব অবতার বলিয়া প্ৰসিদ্ধ। র্তাহারা বৌদ্ধগণের নিকট সজীব বুদ্ধ