পাতা:ঐতিহাসিক চিত্র - পঞ্চম পর্য্যায়.pdf/১১৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


Y) oby ঐতিহাসিক চিত্ৰ প্রত্নতত্ত্ব বিভাগের বহু মনীষী কৰ্ম্মচারী এতদিন ইহার অনুসন্ধান করিতেছিলেন, কিন্তু কেহই সন্ধানে কৃতকাৰ্য্য হন নাই। তাহাতে অনেকেই সিদ্ধান্ত করিয়াছিলেন যে, ভারতের সব্বনাশকারী গিজনীর সুলতানই পুনঃ পুনঃ ভারত-প্ৰবেশকালে ইহার ধবংসসাধন করিয়া গিয়াছেন । সম্প্রতি পাঁচ বৎসর পূর্বে যখন প্ৰাচ্য-তত্ত্ববিৎ ফরাসী পণ্ডিত মুশে ফুশার ভারতের পশ্চিম সীমান্তে ভ্ৰমণ করিতেছিলেন, তখন পেশোয়ারের অৰ্দ্ধমাইল দূরে মাঠের মধ্যে দুটি অদ্ভুত মৃত্তিকা ইষ্টক ও প্রস্তর মিশ্রিত স্তপ দেখিতে পান। তিনি এ দুটিকে কোন প্ৰাচীন কীৰ্ত্তির ধ্বংসাবশেষ বলিয়া অনুমান মাত্র করেন এবং আমাদের ভারত-গভর্ণমেণ্টের প্রত্নতত্ত্ববিভাগে উহার সংবাদ দিয়া চলিয়া যান। তৎপরে ঐ বিভাগের প্রধান কৰ্ম্মচারী মিঃ মাগ্র্যাল ও তাছার সহকারী ডাঃ স্কনার উহা উৎখাত করিতে আরম্ভ করেন। তঁহাদের অধ্যবসায়ে, যত্নে, পরিশ্রমে ঐ দুই স্তুপের মধ্যে ছোটটি হইতে যে অমূল্য সামগ্ৰী আবিষ্কৃত হইয়াছে,তাহা এ জগতে একান্ত দুল্লভ। ঐ স্তপের মধ্যে ৩০ ফুট নিম্নে ভূগর্ভের মধ্যে প্রস্তরময় সমাধি কক্ষের অভ্যন্তর হইতে রাজা কনিষ্কের নামাঙ্কিত, তাহার মূৰ্ত্তিযুক্ত, পিত্তলের কৌটামধ্যে, রাজা কনিক্ষের শিলমোহর ও রাজচিহ্নাঙ্কিত স্ফটিকাধারে তিনখণ্ড বুদ্ধাস্থি পাওয়া গিয়াছে ! দ্বাদশ বৎসর পূৰ্ব্বে যখন নেপাল-সীমান্তে একটি বৌদ্ধস্তােপ উৎখাত করিয়া এইরূপ স্ফটিকাধারে রক্ষিত বুদ্ধের দেহভস্ম আবিষ্কৃত হয়, তখন আমাদের দয়ালু গভৰ্ণমেণ্ট এই অমূল্যরত্ন বৰ্ত্তমানকালের বৌদ্ধরাজ্যগুলির বিহারে অর্থাৎ জাপান, চীন, শ্যাম, ব্ৰহ্ম ও সিংহলের বিচারে ভাগ করিয়া দেন। সেদিন সিমলা হইতে সংবাদ আসিয়াছে,-এবারেও নাকি এই পেশোয়ারে প্রাপ্ত এই পরম পবিত্ৰ মহা-তুল্লভ বস্তুও ঐ সকল DD DDEDBDL DTLLK DBB LEDLK DBBDS ভারত-গভর্ণমেণ্টের এই সঙ্কল্পে এবার আমরা হিন্দুবৌদ্ধ-নির্বিশেষে