পাতা:ঐতিহাসিক চিত্র - পঞ্চম পর্য্যায়.pdf/২২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


প্ৰায়শ্চিত্ত। ' A MOr এইরূপে কয়েক বর্ষ অতিবাহিত হইলে, এক দিন তাহারা সংবাদ পাইল, গুরু বহুকষ্টে ও অদম্য অধ্যবসায়েরর ফলে দ্বাদশ সহস্র সৈন্য ংগ্ৰহ পূর্বক স্বরাজ্য অধিকারের উদ্যোগ করিতেছেন শুনিয়া সির • হিন্দের মোগল শাসনকৰ্ত্তা যুদ্ধনিপুণ সপ্ত সহস্ৰ অশ্বারোহী সমভিব্যাহারে মালব প্ৰদেশাভিমুখে দ্রুত অগ্রসর হইতেছেন। এই সংবাদে তাহারা স্বীয় কৰ্ত্তব্য নিৰ্দ্ধারণ করিয়া দ্রুত গুরুর পশ্চাদগামী হইল। মোগল সৈন্যনিকটবৰ্ত্তী হইয়াছে, জানিতে পারিয়া গুরু “ঢিলবা” গ্রামের সন্নিকৃষ্ট এক স্থলে শিবির সন্নিবেশ পূর্বক মোগলের অপেক্ষা করিতে লাগিলেন। যথাকালে মোগলেরা তথায় উপস্থিত হইবা মাত্র, ক্ষুদ্র শিখ ংহতি গুরুর আশ্চৰ্য্য বৰ্দ্ধন করত কোন এক গুপ্তস্থান হইতে হঠাৎ আবিভূতি হইয়া অসংখ্য মোগল সৈন্যের উপর আপতিত হইল । মোগলেরা এই হঠাৎ আক্রমণে প্ৰথমে একটু ব্যতিব্যস্ত হইয়া পড়িলেও শীঘ্রই আত্মস্থ হইয়া সেই বীরকুলের গতি সংহৃত করিতে লাগিল । চল্লিশ জন, সপ্ত সহস্ৰ সৈন্যের মধ্যে সমুদ্রের তুলনায় গোস্পদ মাত্র । কাজেই অচিরেই তাহারা সকলেই ধরাশায়ী হইতে বাধ্য হইল । কিন্তু তাহদের প্রতাপে মোগল শক্তি কতকটা সস্কুচিত হইয়া পড়ে। গুরুগোবিন্দ এই আত্মত্যাগী বীরদিগের পরিচয় জানিবার জন্য ব্যস্ত হইয়াও অচিরে মনোবাসনা পূর্ণ করিতে পারিলেন না। দেখিতে দেখিতে র্তাহার সহিত মোগলদের বিষম সংঘর্ষ উপস্থিত হইল । সে সংঘর্ষের পরিণামে তুর্কশক্তি শিখশক্তির নিকট মস্তক নত করিতে বাধ্য হইয়া রণক্ষেত্ৰ হইতে দ্রুত পলায়নপর হইলে, গুরু ভূমিশায়ী মুমূর্ষু বীরদিগের শুশ্রীক্ষার বন্দোবস্ত করিতে করিতে এক ব্যক্তির নিকটে আসিয়া স্তম্ভিত হইয়া দাড়াইয়া পড়িলেম । এ যে মোহন সিংহ । যে মোহন সিংহ কিছুকাল পূর্বে গুরুর আজ্ঞা অগ্রাহ করিক্স দুর্গ ত্যাগ করিয়াছিল, যাহার সাহায্য হইতে বঞ্চিত হওয়ায় গুরুপক্ষ যথেষ্ট দুর্বল হইয়া, ।