পাতা:ঐতিহাসিক চিত্র - পঞ্চম পর্য্যায়.pdf/৩৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


VK) O ঐতিহাসিক চিত্ৰ । এই অপরাধের বিচার না করিয়া হকীকতকে ইসলামের নিন্দাকারী বলিয়। রাজদ্বারে অভিযুক্ত করিলেন । মুসলমান কাজীরা হকীকতকে দোষী সাব্যস্ত করিয়া আদেশ করিলেন যে, হকীকত ইসলামধৰ্ম্ম অবলম্বন করেন, তবেই ভঁাহাকে এই মহাপাপের জন্য ক্ষমা করা যাইতে পারে ; কিন্তু যদি তদ্ধৰ্ম্ম গ্রহণে অস্বীকৃত হন, তবে তঁহাকে “কতল” ( নিহত ) করা হইবে । এই আদেশবাণী অচিরেই সমস্ত নগরময় ব্যাপ্ত হইয়া গেল। প্ৰতি হিন্দুর গৃহ হইতে হাহাকার ধ্বনি উত্থিত হইয়া চারিদিক মুখরিত করিয়া তুলিল ; কিন্তু প্ৰতি মুসলমান গৃহে আনন্দের অপূৰ্ব্বস্রোত প্ৰবাহিত হইতে লাগিল । একমাত্র পুত্রের এবম্বিধ দশা শ্রবণ করিয়া বৃদ্ধ মাতা শোকে উন্মাদিনীবৎ হইয়া উঠিলেন, তিনি স্বীয় অবস্থা বিস্মৃত হইয়া কাজীদিগের গৃহে যাইয়া তাহদের পদে মস্তক স্থাপনপূর্বক কাতর ভাবে সন্তানের জন্য ক্ষমা ভিক্ষা করিতে লাগিলেন। লোভীদিগের পরিতোষের জন্য আপনার সমস্ত ধনসম্পত্তি দান করিতে স্বীকৃত হইলেন । কিন্তু কিছুতেই কিছু হইল না। পাষাণাদপি কঠোর-হৃদয় কাজীরা তঁহার কোন কথাই শ্রবণ করিল না-দুৰ্ব্বাক্য বলিয়া ভঁাহাকে স্ব স্ব গৃহ হইতে তাড়াইয়া দিল । তখন বুদ্ধ মাতাপিত শাসনকৰ্ত্ত (হাকিম) আমীর বেগের নিকট ন্যায় বিচারের প্রার্থনা করিলে, শান্তিপ্রবণ আমীরবেগ সমস্ত ব্যাপার শ্রবণ করিয়া বলিলেন-বালকেরা সাধারণতঃ এরূপ ‘বাদবিবাদ” করিয়াই থাকে। উহাদের কথা লইয়া প্ৰবীণ ব্যক্তিদের বিচার করিতে বসা উচিত নহে। বালকের সর্ববিষয়ে সম্পূর্ণ নিৰ্দোষ হওয়া বড়ই দুর্ঘট । এই সামান্য ঘটনা লইয়া কাজীদের এতদূর অগ্রসর হওয়া যুক্তিযুক্ত হয় নাই।” তাহার এই যুক্তিপূর্ণ বাক্য শ্রবণ করিয়া নগরের তাবৎ মুসলমান অত্যন্ত অপ্ৰসন্ন হইয়া উঠিল । তাহারা তখন সকলে একত্রিত হইয়া,