পাতা:ঐতিহাসিক চিত্র - পঞ্চম পর্য্যায়.pdf/৫০৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


8) R ঐতিহাসিক চিত্র। BBLELS SDDD KEE SBLY BtYK KLDDLS SS SDDLL গ্ৰহণ করিয়া সুশীলা পত্নীর সহবাসে রাজকাৰ্য্য পরিচালন করিতে লাগিলেন। কিন্তু এই সুখ দীর্ঘকাল স্থায়ী হইল না । -যোগেন্দ্ৰ নারায়ণ রাজ্য ভার গ্ৰহণ করিবার পূর্বেই প্ৰজারা নীল করের অত্যাচারে। প্ৰপীড়িত হইতেছিল ; তাহার রাজ্য প্ৰাপ্তির পর তাহারা রীতিমত বিদ্রোহী হইয়া উঠিল। যোগেন্দ্ৰ নারায়ণ তাহদের সঙ্গে যোগ দিলেন, প্ৰজা রক্ষার জন্য প্ৰাণপণে সাহায্য করিতে লাগিলেন । পরিশেষে নীলকরের হস্ত হইতে প্ৰজার কষ্ট মোচন করিতে পারিলেন বটে, কিন্তু নিজেকে আর রক্ষা করিতে পারিলেন না। অতিরিক্ত চিন্তায় ও পরিশ্রমে শরীর অবসর হইয়া °ङ्घ्रि । যৌবনের প্রারম্ভে ১২৬৯ বঙ্গাব্দে ২৯শে বৈশাখ তারিখে ইহধাম ত্যাগ করিলেন । যোগেন্দ্ৰ নারায়ণের মৃত্যুর সময় তাহার ত্রয়োদশ-বৎসর-বয়স্ক পত্নী শরৎসুন্দরীর হস্তে এই বিশাল পুঠিয়া রাজ সরকারের ভার অর্পিত হইল । রাণী শরৎসুন্দরী পঞ্চদশ বৎসর বয়সে ১২৭২ সালে কোট অব ওয়ার্ডস হইতে সম্পত্তির ভার গ্ৰহণ করেন। তৎপর ১২৭৩ সালে মাঘ মাসে যতীন্দ্ৰ নারায়ণকে দত্তক পুত্র গ্ৰহণ করেন। ১২৮৭ সালে ফান্তন মাসে দত্তকের বিবাহ হয়। দত্তকের পত্নীর নাম রাণী হেমন্ত কুমারী দেৰী । দেবী শরৎসুন্দরী বঙ্গীয় রমণী কুলের শিরোভূষণ। ইহার বিশুদ্ধ চরিত্র, পবিত্র দেবভাব, দানশীলতা ও সহানুভূতি জগজজনের আদশ। নারী চরিত্র কতদূর উৎকর্ষতা লাভ করিতে পারে ; মানবীয় কুপ্রবৃত্তিনিচয় ধৰ্ম্মচর্চার মহীয়সী শক্তিতে কতদূর পর্য্যন্ত নিস্তেজ হইতে পারে, এই দেবী তাহার জীবস্তু দৃষ্টান্ত। বিপুল ঐশ্বৰ্য্যের অধিকারিণী হইয়াও আহার,বিহার, ভোগ-বিলাসকে পদতলে দলিত করিয়া বিশুদ্ধ ধৰ্ম্মের জন্য, পরোপিকারের - জন্য আপনার জীবনকে উৎসর্গ করিয়াছিলেন । সেই উনবিংশ শতাবীতে পাশ্চাত্য শিক্ষা ও সভ্যতার বিপুল সংঘর্ষে বঙ্গীয় ললনাগণ ভোগ