পাতা:ঐতিহাসিক চিত্র - পঞ্চম পর্য্যায়.pdf/৮৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


তৈমুরলাঙ্গের ভারত আক্রমণ । ዓ እS হইয়া শত্রুর গতিরোধ করিতে বদ্ধপরিকর হন। বীর সারিঙ্গের সৈন্য চালনায় মহম্মদ ব্যতিব্যস্ত হইয়া পিতার নিকট সংবাদ 'প্রেরণ করেন । পুত্রকে রক্ষা করিয়াও শত্রুদমন করিবার জন্য তৈমুরের ভারত আক্রমণের উদ্যোগ হওয়া অসম্ভব নয় । যাহা হউক বিভিন্ন প্রদেশ হইতে সৈন্ত সংগৃহীত হইয়া বৃক্ষ গাত্রের ন্যায়। ঘন-সন্নিবিষ্ট এক বিরাট সৈন্যদল গঠিত হইয়া উঠিল । তৈমুর এই বৃত্তী সেনার নেতা। বরিষার বারিধারার ন্যায় নগর ও গ্ৰাম ভাসাইয়া এই সৈন্যদল অগ্রসর হইতে লাগিল । পতিতপাবনী জাহ্নবীর স্রোতে যেরূপ মত্তমাতঙ্গ ভাসিয়া গিয়াছিল, সেইরূপ তৈমুরের কৃতসঙ্কল্প সাহসী সৈন্যদলের সম্মুখে সমুদয় প্রতিবন্ধকই অতিক্ৰম করিয়া অগ্রসর হইতে লাগিল । তরঙ্গায়িত সিন্ধুর তটে তৈমুরের সৈন্তদল পঙ্গপালের দ্যায় আসিয়া উপনীত হইয়াছে। ১৩৯৮ খৃঃ মাৰ্চমাসে সমরকান্দ ত্যাগ করিয়৷ এই সৈন্যদল তিনমাস অভুক্ত, অৰ্দ্ধভূক্ত ও অনশনে যে লক্ষ্যের মধ্যে ছুটিয়াছে, আজি সেই ভারতের দ্বারদেশে উপনীত । সম্মুখে দুকুলপ্লাব বিশাল হৃদয়া, উত্তালতরঙ্গময়ী চঞ্চল সিন্ধু। সে বারির বিরাম নাই ; দক্ষিণে, বামে সম্মুখে, গাঢ়, তীব্ৰ উদ্বেলিত অম্বুরাশি ! আশ্বের হ্রেষারবে কর্ণ বধির হইয়া উঠিতেছে, বিজয়োম্মত্ত সৈনিকগণের পদোখিত ধূলিরাশিতে আকাশমণ্ডল অন্ধকার হইয়া উঠিল ; শান্তিপ্রিয় ভারতবাসী বিপদ গণনা করিয়া স্তম্ভিত! কই সিন্ধু ত আপন স্ফীত দেহ সংস্কুচিত করল না ! ইহাতেও বীর হৃদয় টলিবার নহে। তৈমুর সিন্ধুর প্রতি ভ্ৰকুট দৃষ্টি করিলেন। উৎসাহ তাহীর শিরায় শিরায় ছুটিতে লাগিল । সে উৎসাহের কাছে সমস্ত প্ৰতিবন্ধকই তুচ্ছ। সিন্ধুর বক্ষের উপর সেতুবন্ধনের আদেশ প্রচারিত হইল। দুই দিনের মধ্যে দুস্তীর্ণ সিন্ধু সেতুবন্ধ হইয়া পড়িল । তৈমুর সগৰ্ব্বে সসৈন্যে সিন্ধু অতিক্রম করিয়া চলিয়া গেলেন। হায়, সিন্ধু ! তোমার বক্ষের উপর দিয়া দুঃখিনী ভগিনী ভারতমাতার অঞ্চলমণি স্বাধীনতা