পাতা:ঐতিহাসিক চিত্র - পঞ্চম পর্য্যায়.pdf/৯৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ঐতিহাসিক চিত্ৰ । جاس তাহার উদ্দেশ্য মহৎ ছিল, সে বিষয়ের কোন বিরুদ্ধ তর্ক আমাদের মনে স্থান পায় না না। তবে তঁহার সেই উদ্দেশ্য যে একেবারে স্বার্থশূন্য ছিল, সে কথা ও সাহস করিয়া বলিতে পারা যায় না । শিবাজী বা ব্লাজসিংহের ন্যায় বার্তাহার উদ্দেশ্য মহত্তর বা নিৰ্ম্মলতার না হইতে পারে, তথাপি সে উদ্দেশ্যেরও যে যথেষ্ট মূলা আছে, ইচাও অনায়াসে স্বীকার করিতে পারা যায়। বিশেষতঃ অষ্টাদশ শতাব্দীর বঙ্গদেশে অন্যান্য বাঙ্গালীর ন্যায় বৈদেশিকের পদলেহন না করিয়া তিনি যে স্বদেশের স্বত্বস্থাপনের চেষ্টা করিয়াছিলেন, ইহা অল্প প্ৰশংসার কথা নহে ।” নন্দকুমার সম্বন্ধে উহাই আমাদের সিদ্ধান্ত । উপরোক্ত বণনায় আমরা তাহাকে রাজসিংহ বা শিবাজীর সহিত তুলনা করি নাই । তবে তিনি যে মহৎ উদ্দেশ্যের জন্য জীবন বলি দিয়াছিলেন, তাহার প্রশংসা করিয়াছি মাত্ৰ । যোগীন্দ্র বাবুর প্রথম বক্তব্য মুতাক্ষরীণ কারের বুত্তান্ত বিশ্বাসযোগ্য কি না ? এই প্রশ্ন করিয়াই তিনি নিজেই আবার তাহার উত্তর দিতে চেষ্টা করিয়াছেন । তিনি বলিতেছেন যে, আমরা তাহা বিশ্বাসযোগ্য বলিতে পারিপ না । কারণ, তাহা হইলে আমরা নন্দ কুমারকে যে গৌরবে ভূষিত করিয়াছি, তাহার কিছুষ্ট থাকে না । অবশ্য আমরা মুতাক্ষীণকাবের সাহিত এক মত হইতে পারি না । তাহা হইলে ও তাহার বাণিত ব্যাপার গুলি বিশ্বাস্থ্য কি অবিশ্বাস্ত তাহার একটা উত্তর আমরা দবার চেষ্টা করিতেছি । মুতাক্ষরীণকার নন্দকুমারকে বলিতেছেন, a man of an intriguing spirit (* <oot o 231 qC<o <ft:$. অস্বীকার কার না । আমরা ও বলিয়াছ, “ তবে সুচতুর ইংরেজ জাতির কুট নীতিয় সহিত তাহার প্রতিভা ও বুদ্ধির সংঘর্ষণ ঘটায়, কখন কখন তাহাকে যে কুট বুদ্ধির পরিচয় দিতে হইয়াছে, ইহা একেবারে অস্বীকার করিতে পারা যায় না । ‘শঠে শাঠ্যং সমাচারেৎ’ এই নীতি বলে