পাতা:কবিকঙ্কণ-চণ্ডী (প্রথম ভাগ) - চারুচন্দ্র বন্দ্যোপাধ্যায়.pdf/১০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


toyo কৃতজ্ঞতা স্বীকার এই টীকা রচনায় আমার নিজের কৃতিত্ব কিছু নাই। আমি মাধুকরী করিয়া এই তিলোত্তম টীকা রচনা করিয়াছি। তাজমহল রচনায় মুটেমজুরদের যে কৃতিত্ব ছিল, এই টীকা রচনায় আমারও কৃতিত্ব ততটুকু। অবসরের অল্পতা, নির্বাচন শক্তির অপটুতা ও জ্ঞানের অগভীরতার জন্য ইহাতে অনেক অসম্পূর্ণতা ত্রুটি ও ভ্ৰম প্ৰমাদ রহিয়া গিয়াছে। কতক কতক আমি নিজেই এখন বুঝিতে পারিতেছি। অভিজ্ঞগণ অনুগ্ৰহ করিয়া আমাকে ত্রুটিগুলি দেখাইয়া দিলে ভবিষ্যতে সংশোধন করিবার চেষ্টা করিব। “এষ স্যাম অহম, অল্পবুদ্ধিবিভবোেহপ্যেকোহপি কোহপি ধ্রুবম মধ্যে ভক্তজনস্য মৎকৃতির ইয়ং ন স্তাদ অবজ্ঞাস্পদম। কিং বিদ্যাঃ শরঘাঃ কিম উজ্জ্বলকুলাঃ কিং পৌরুষং কিং গুণাস তৎ কিং সুন্দরম আদরেণ রসিকৈর নাপীয়তে তনু-মধু ? ৷” এই আমি অল্পবুদ্ধি, একাকী, অখ্যাত ; তথাপি সাহিত্যভক্তগণের মধ্যে আমার এই কৃতি যেন অবজ্ঞাভাজন না হয় ; মধুমক্ষিকাগণ কি বিদ্যা কি সৎকুল কি পৌরুষ ও কি গুণেব গর্ব করিতে পারে ? তথাপি রসিকগণ কি সাদরে তাহদের সংগৃহীত সুন্দর মধু পান করেন না ? আমার বহু পরিশ্রমের ও বহু আপেক্ষিত এই কৰ্ম্মফল আসন্ন-প্ৰকাশ হইয়া আসাতেও আমার মনে আনন্দের পরিবৰ্ত্তে বেদন ও পরিতাপ প্ৰবল হইয়া উঠিতেছে। যে মহামনীষী মহাপুরুষের অনুগ্রহে আগ্রহে ও প্ররোচনায় আমি এই দুঃসাহসিক কৰ্ম্মে প্ৰবৃত্ত হইয়াছিলাম, সেই সার আশুতোষ মুখোপাধ্যায় সরস্বতী মহাশয় অকস্মাৎ স্বৰ্গে গমন কবিয়াছেন। র্তাহার স্বৰ্গ প্ৰয়াণের অল্পদিন পূর্বে তিনি আমাকে জিজ্ঞাসা করিয়াছিলেন—“তোমার বইয়ের আর কত দেরী ?” আমি উত্তর দিয়াছিলাম-“এখনও অন্তত পাঁচ বৎসর !” তাহাতে তিনি বলিয়াছিলেন-“পাঁচ বৎসর। আমরা কি কেউ পাঁচ বৎসর বঁাচুব ?” বঙ্গদেশের ও বিশেষ করিয়া আমার দুর্ভাগ্য বশতঃ তাহার এই আশঙ্কা তাহার পক্ষে সত্য হইয়া গিয়াছে। এই টীকার প্রথম খণ্ডটিও আমি তঁহার হস্তে সমর্পণ করিতে পারিলাম না। এই ক্ষোভ আমার আজীবন থাকিবে। Gt夺协 চারু বন্দ্যোপাধ্যায় è5 SOOS